HEADLINE
শ্যামনগরে ইটভাটায় জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে কাঠ সাতক্ষীরায় ঔষধ ফার্মেসী থেকে ৯ হাজার পিচ নেশাদ্রব্য ট্যাবলেটসহ গ্রেপ্তার ২ জমকালো আয়োজনে ঝাউডাঙ্গায় ৮ দলীয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন যশোরের কেশবপুরে কোটি কোটি টাকার সোলার স্ট্রিট লাইট নষ্ট! ভূয়া এতিম দেখিয়ে বছরের পর বছর সরকারি অর্থ আত্মসাৎ! ঝাউডাঙ্গায় মেয়াদবিহীন ও লাইসেন্স ছাড়া চলছে বেকারী পণ্য বাজারজাতকরণ ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদানে ফিরে আনা জরুরী ঝাউডাঙ্গায় গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা নলতায় ডা: ছবুরের বাড়ীতে দুর্ধর্ষ চুরি, টাকাসহ স্বর্ণালংকার লুট  স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নারী ও যুববান্ধব বাজেটের অন্তরায়
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন

ঝাউডাঙ্গায় মেয়াদবিহীন ও লাইসেন্স ছাড়া চলছে বেকারী পণ্য বাজারজাতকরণ

মোমিনুর রহমান সবুজ / ৯৪
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২

সাবেক মেম্বার ও আওয়ামী লীগের নেতা পরিচয় দিয়ে মেয়াদ বিহীন ও কোন প্রকার লাইসেন্স ছাড়া হরহামেশাই বছরের পর বছর বেকারী পণ্য বাজারজাতকরণ করে আসছে ‘ভাই ভাই বেকারী’ নামক একটি বেকারী প্রতিষ্ঠান। এ কারখানাটি গোড়ে তোলা হয়েছে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কামারবায়সার প্রত্যন্ত গ্রামের একেবারে ভিতরে। যেখানে নেই কোনো যাতায়াতের সু-ব্যবস্থা। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে মেয়াদ বিহীন খাদ্য ও কোন প্রকার লাইসেন্স ছাড়ায় ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

ঘটনা বুধবার (২৩ নভেম্বর) সকালে সদরের ঝাউডাঙ্গা বাজারের একটা দোকানে একজন ক্রেতা পাউরুটি কিনতে গিয়ে দেখতে পাই প্যাকেটের ভিতরে থাকা ‘ভাই ভাই বেকারী’ নামক কাগজে কোনো উৎপাদন তারিখ ও মেয়াদ উত্তীর্ণ তারিখ দেওয়া নেই। যেখানে ভোক্তা অধিকার আইনে সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করা আছে পণ্যের উৎপাদন তারিখ ও মেয়াদ উত্তীর্ণ তারিখ উল্লেখ থাকতে হবে। সেখানে ভোক্তা অধিকার আইন না মেনে কিসের বলের উপর ভাই ভাই বেকারী মেয়াদবিহীন পণ্য ও বিএসটিআই লাইসেন্স ছাড়ায় বাজারজাত করছে প্রশ্ন সাধারণ ক্রেতাদের। বিষয়টি ভোক্তা অধিকার কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন স্থানীয়রা। সরেজমিনে ঝাউডাঙ্গা বাজারের আরো কয়েকটি দোকান ঘুরে দেখা যায় ভাই ভাই বেকারী নামে বাজারজাত করা পাউরুটি, কেক, বিস্কুট ও শিশুখাদ্যসহ কয়েকটি পণ্যের প্যাকেটের ভিতরে থাকা কাগজে মেয়াদ উৎপাদন ও মেয়াদ উর্ত্তীণের তারিখ দেওয়া হয়নি। বিএসটিআইয়ের সিল থাকলেও নেই লাইসেন্স নাম্বার।

এসব বিষয়ে ‘ভাই ভাই বেকারি’র মালিক রবিউল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, লাইসেন্স তৈরি করতে দেওয়া হয়েছে। আর প্যাকেটে মেয়াদের তারিখ দিতে কারখানার শ্রমিকরা ভুল করেছে এবার থেকে আর ভুল হবেনা। তিনি আরো বলেন, আমি এ ওর্য়াডের সাবেক মেম্বার ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ আরো কত কী পরিচয়! তবে এ ধরনের মেয়াদ বিহীন পন্য ও লাইসেন্স ছাড়া সাধারণ জনগণের কাছে বিক্রি না করার আহবান জানান ক্রেতারা।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতেমা-তুজ-জোহরার সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি জানান বিএসটিআই লাইসেন্স ব্যতিত ও মেয়াদ বিহীন পন্য বিক্রিসহ বাজারজাতকরণ সম্পন্ন নিষেধ। এ ধরনের কেউ যদি করে তাহলে আমরা অবশ্যই ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এর ব্যবস্থা গ্রহণ করব।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ