HEADLINE
পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে ১০ লক্ষ টাকার মালামাল লুট! বাংলাদেশের মেয়েরা এখন আর পিছিয়ে নেই এমপি রুহুল হক ভোমরায় পাসপোর্ট যাত্রীদের তল্লাশির নামে বিজিবির হয়রানি সাতক্ষীরা পৌরমেয়র চিশতিসহ পৌর বিএনপির ১০ নেতা আটক শাশুড়ির কামড়ে জামাইয়ের কান ও জামাইয়ের কামড়ে শাশুড়ির হাতের শিরা বিছিন্ন কালিঞ্চী এ. গফ্ফার মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্দে আদালতে মামলা বৈকারীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ চোরাকারবারি গ্রেপ্তার রাত পোঁহালেই দেবহাটা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্রকান্ডে ফাঁসিয়ে ভারতে পালালেন মূলহোতা নির্বাচন নিয়ে ভাবার কিছু নেই, আমরা গণতান্ত্রিক দল : সাতক্ষীরায় আ.ক.ম মোজাম্মেল হক
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৪২ পূর্বাহ্ন

ঝাউডাঙ্গায় চলছে বেতনা নদীর অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ অভিযান

মোমিনুর রহমান সবুজ / ৫২৮
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৮ এপ্রিল, ২০২২

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নেতৃত্বে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঝাউডাঙ্গায় বেতনা নদী খননে নদীর তীরবর্তী স্থানে অবৈধ দখল উচ্ছেদ এর অংশ হিসেবে সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ও জেলা প্রশাসন যৌথভাবে শুক্রবার সকাল হতে বাজারের পাঁকা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা শুরু করেন।

এসময় বিভিন্ন নদীর পাশে নির্মিত অনেক অবৈধ ছোট-বড় পাকা ও আধা পাকা স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। একই সাথে চলছে নদীর তীরবর্তীতে বসবাসরত মানুষের আহাজারি। সেইসাথে প্রশাসনের নিকট ভূমিহীন পরিবার গুলো বাসস্থানের ব্যবস্থা করার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন। বিগত দু মাস আগে নদী খননেন জন্য এসকল অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার কথা বলা হয় কিন্তু যারা সরিয়ে নেয়নি তাদের স্থাপনা গুলো এভাবে ব্লুডেজার দিয়ে ভাঙ্গা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পাউবো’র এক কর্মকর্তা। নদীর তীরবর্তী ভূমিহীন পরিবার আব্দুল মতিন মিয়া(৬২) বলেন এই বাড়িই আমার সহায় সম্বল ছিল। এখন আমি স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে কোথায় যাব? সরকার যদি আমাদের দিকে একটু নজর না রাখে তাহলে আমরা কার কাছে যাবো? এছাড়া ব্রিজের পূর্ব পাশে বড় মসজিদের বেশ কিছু অংশ পরেছে। এসময় মসজিদের পেশ ইমাম মোঃ ইমান আলী বলেন রমজান মাসের কারণে আমাদেরকে আগামী একমাস সময় বেধে দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। রমজানের পরেই এ স্থাপনা সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে। এ নদী খনন প্রকল্পের আবুল কালাম আজাদের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা আবু মূসা জানান, সঠিক সিডিউল মাপ অনুযায়ী আমরা কাজ করছি। নদীর জায়গায় নির্মিত অবৈধ স্থাপনা গুলো সরিয়ে নেওয়ার জন্য তালিকা পূর্বেই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরাবর জমা দেওয়া হয়েছে। সিডিউল অনুযায়ী সাড়ে ৬ কিঃমিঃ দৈর্ঘ্য ও ১৮৫ ফুট প্রস্থ মাপ অনুসারে নদী খনন করা হবে। তবে ম্যাপ অনুযায়ী জায়গা বিশেষ কম-বেশি হতে পারে বলে জানান তিনি।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ