HEADLINE
কালিঞ্চী এ. গফ্ফার মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্দে আদালতে মামলা বৈকারীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ চোরাকারবারি গ্রেপ্তার রাত পোঁহালেই দেবহাটা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্রকান্ডে ফাঁসিয়ে ভারতে পালালেন মূলহোতা নির্বাচন নিয়ে ভাবার কিছু নেই, আমরা গণতান্ত্রিক দল : সাতক্ষীরায় আ.ক.ম মোজাম্মেল হক কুলিয়ায় পানিতে ভাসছে কাফনের কাপড় পরিহিত লাশ সাতক্ষীরায় দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজির মামলা: তদন্ত পিবিআইতে সাতক্ষীরায় খোলপেটুয়া নদীর বেড়ী বাঁধ ভেঙে এলাকা প্লাবিত কলারোয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ২৫ ইভটিজিং প্রতিরোধে আমাদের করণীয়
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন

নৌকা সংস্কারে ব্যস্ত সুন্দরবনের জেলেরা, তিন মাস পর খুলছে তাদের দুয়ার

আব্দুল কাদের, শ্যামনগর / ৭৮
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৯ আগস্ট, ২০২২

দীর্ঘ তিন মাস সুন্দরবন প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ছিল। এসময়টাতে সুন্দরবনে প্রবেশ করতে পারেনি মৎস্যজীবি জেলেসহ পর্যটকরা। ফলে সুন্দরবনের ওপর নির্ভরশীল জেলেরা এই তিন মাস সুদের টাকায় সংসার চালিয়ে হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। একদিনে সুদের ঋণের চাপ মাথার উপরে, অন্যদিকে আবার ঋণ নিয়ে নৌকা সংস্কার করে সুন্দরবনে প্রবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছে উপকূলীয় জেলেরা।

চলতি বছরের ১ জুন থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সুন্দরবনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার প্রজ্ঞাপন দেয় মন্ত্রিপরিষদ। দীর্ঘ তিন মাস পরে আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে বৈধভাবে সুন্দরবনে প্রবেশের সুযোগ পাবে জেলেসহ পর্যটকরা।

এসময়ে নৌকা সংস্কার ও অন্যান্য প্রস্তুতিপর্ব নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন জেলেরা। তবে ঋণের বোঝা নিয়ে হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন জেলেরা। সুদের টাকা নিয়ে তিন মাস সংসার চালিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন তারা। সুন্দরবনে মাছ ধরতে যেতে গেলে নৌকা সংস্কার করাটা জরুরি। তাই বাধ্য হয়ে আবারও ঋণ নিয়ে এ সমস্ত কাজ করছে জেলেরা।

এদিকে, বনবিভাগের পক্ষ থেকে জেলেদের সহযোগিতার আশ্বাস দিলেও সেটার বাস্তবায়ন করা হয়নি।শ্যামনগর বুড়িগোয়ালিনী এলাকার মৎসজীবি হামিদুল ইসলাম জানান, তিনমাস সুদের টাকা নিয়ে সংসার চালিয়ে এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছি। তাই বাধ্য হয়ে কয়েক ধাপে ঋণ নিতে হয়েছে। আগামী মাস থেকে সুন্দরবনে মাছ ধরতে যেতে হবে তাই ঋণ নিয়ে নৌকা, জাল সংস্কার করতে হচ্ছে। মাথার উপরে এত বড় ঋণের বোঝা নিয়ে সুন্দরবনে ফিরতে হচ্ছে।
মো. জামসেদ নামের অপর এক মৎস্যজীবি জানান, বছরে পাঁচ মাস সুন্দরবনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা থাকে। তাই এই পাঁচ মাসে যে পরিমাণ সুদের ঋণ গ্রহণ করতে হয় সেটা পুরো বছরের আয় দিয়েও শোধ করা যায় না। বছরের প্রতিটা দিন-ই ঋণগ্রস্ত হয়ে থাকতে হয়। মাথার ওপর এত বড় ঋণের বোঝা নিয়ে সুন্দরবনে যেতে হবে তবে এই ঋণ কাটিয়ে উঠার সম্ভবনা খুবই কম

সাতক্ষীরা রেঞ্জ কর্মকর্তা এম,কে,এম ইকবাল হোসাইন চৌধুরী বলেন সেপ্টেম্বর ১তারিখ থেকে বৈধ্য ভাবে সুন্দরবনে প্রবেশ করতে পারবে জেলে বাওয়ালীরা।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ