বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন

অতিবৃষ্টিতে শীতকালীন সবজির ব্যাপক ক্ষতি!

হাবিবুল্লাহ বাহার / ৪৭৯
প্রকাশের সময় : সোমবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২১

কলারোয়ায় অতিবৃষ্টির কবলে পড়ে চাষীরা শীত মৌসুমের আবাদ কৃত ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন শীতকালীন সবজি চাষী ও সরিষা চাষীরা। মাঠ ঘুরে দেখা গেছে কলারোয়ার জয়নগর ও ধানদিয়া এলাকায় সরিষা ও শীত কালীন সবজির জমিতে পানি জমে গেছে, যেটি ফসলের জন্য ক্ষতির ইঙ্গিত দিচ্ছে।সবজির মধ্যে আলু, পটল, পিয়াজ, রসুন, বাঁধাকপি, ফুলকপি ইত্যাদি ফসলের চরম ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। দিগন্তজোড়া সরিষার আবাদ হলেও এ বছর চরম ক্ষতির মুখে পড়তে পারে এমনই ধারণা করছেন কৃষকরা। ভোজ্য তেলের বাজারমূল্য লাগামছাড়া হওয়ায় কৃষকেরা প্রয়োজনের তুলনায় বেশি সরিষার আবাদ করেছেন এ বছর। চাহিদা মিটিয়ে ও বিক্রি করতে পারবেন এ আশা ছিল তাদের। কিন্তু আশাকে নিরাশ করে দিয়েছে অতিবৃষ্টি। সরিষার ভালো ফলনের সম্ভাবনা থাকলেও অতিবৃষ্টিতে সরিষার জমিতে পানি জমাট বেঁধে যাওয়ায় গাছ নষ্ট হয়ে যেতে পারে, তবে এ বছর সরিষা চাষীরা চরম ক্ষতির মুখে পড়তে পারে এমনই ধারণা তাদের।ধানদিয়া গ্রামের আরশাদ গাজী  জানান, এবছর তিনি ২বিঘা জমিতে সরিষা আবাদ করেছেন যা পানিতে তলিয়ে গেছে। এ বছর সরিষার ভালো ফলনের সম্ভাবনা থাকলেও বৃষ্টিতে চরম ক্ষতি করে দিয়েছে সরিষা সহ অন্যান্য ফসলের। ‌অসময়ের অতিবৃষ্টি কৃষকের হতাশার কারণ হতে পারে বলে তিনি মনে করছেন।
জয়নগর গ্রামের শুভঙ্কর মন্ডল জানান, তিনি তিন বিঘা জমিতে সরিষার আবাদ করেছেন , তিন বিঘা জমিতে চাষ, বীজ, সার দিয়ে চাষ করতে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে যা অতিবৃষ্টির কারণে নষ্ট হতে বসেছে। এ বছর সরিষার ভালো ফলনের সম্ভাবনা থাকলেও বৃষ্টির কারণে নষ্ট হতে বসেছে, যেটি কোন কৃষকের কাম্য ছিল না।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ