HEADLINE
পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে ১০ লক্ষ টাকার মালামাল লুট! বাংলাদেশের মেয়েরা এখন আর পিছিয়ে নেই এমপি রুহুল হক ভোমরায় পাসপোর্ট যাত্রীদের তল্লাশির নামে বিজিবির হয়রানি সাতক্ষীরা পৌরমেয়র চিশতিসহ পৌর বিএনপির ১০ নেতা আটক শাশুড়ির কামড়ে জামাইয়ের কান ও জামাইয়ের কামড়ে শাশুড়ির হাতের শিরা বিছিন্ন কালিঞ্চী এ. গফ্ফার মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্দে আদালতে মামলা বৈকারীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ চোরাকারবারি গ্রেপ্তার রাত পোঁহালেই দেবহাটা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্রকান্ডে ফাঁসিয়ে ভারতে পালালেন মূলহোতা নির্বাচন নিয়ে ভাবার কিছু নেই, আমরা গণতান্ত্রিক দল : সাতক্ষীরায় আ.ক.ম মোজাম্মেল হক
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন

কৈখালী সীমান্তে দুই ইউপি সদস্যের ছত্রছায়ায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে মাদক সেন্ডিকেট

শ্যামনগর প্রতিনিধি / ২৮৬
প্রকাশের সময় : রবিবার, ৮ মে, ২০২২

শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়নের দুই ইউ,পি সদস্যর ছত্রছায়ায় কৈখালী সীমান্তে দাপটিয়ে বেড়াচ্ছে চোরাই সেন্ডিকেট চক্র। সরজমিনে জানা যায়, কৈখালী ইউনিয়ন পরিষদের ০৪নং ওয়ার্ডের ইউ,পি সদস্য মোঃ রাশিদুল ইসলাম এবং ০৩নং ওয়ার্ডের ইউ,পি সদস্য মোঃ আমিনুর রহমানের সহযোগিতায় সীমান্তে চোরাই সেন্ডিকেট আরশাদ বরকন্দাসের পুত্র মোঃ মোনাজাত, মৃত বজলুল সোবহান পুত্র কাসেম, রশিদ চৌকিদারের পুত্র জব্বার, বড়োলা হাউলির পুত্র বোতল, আশরাফের পুত্র সবুজসহ বেশ কয়েকজন। ০৮ ই মে শ্যামনগর থানা পুলিশের হাতে ইউ,পি সদস্য মোঃ রাশিদুল ইসলামের ভাতিজা মোঃ মোখলেছুর রহমান জব্বার একাধিক মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়। এ সময় ইউ,পি সদস্য রাশিদুল মাদক ব্যবসায়ী ও সীমান্তের আলোচিত চোরাইসেন্ডিকেট জব্বারকে ছাড়ানোর জন্য পায়তারা করে এবং শ্যামনগর থানায় যায়। বর্তমানে কৈখালী সীমান্তে প্রতিনিয়ত চোরাইসেন্ডিকেটের মাধ্যমে অবৈধভাবে রেনু, গরু , মাদকসহ বিভিন্ন মালামাাল পার হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় পত্রিকাসহ অনলাইন পত্রিকায় একাধিক সংবাদ প্রকাশিত হলে চোরাইসেন্ডিকেট চক্র সাংবাদিকদের বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে থাকে। কৈখালী সীমান্তে মাদক ব্যবসা ও চোরাাইসেন্ডিকেটের অপর আলোচিত মোঃ মোনাজাতকে সাধু সাজাতে ইউ,পি সদস্য রাশিদুল ও আমিনুর স্থানীয় সাংবাদিককে ভুল বুঝিয়ে ভিডিও ধারনের মাধ্যমে একটি ভিডিও প্রতিবেদন তৈরী করে। একাধিক সূত্রে জানা যায় , ইউ,পি রাশিদুল চোরাইসেন্ডিকেটে চক্রের নিকট থেকে মাশোয়ারা নিয়ে থাকে। এ বিষয়ে ইউ,পি সদস্য রাশিদুল ইসলাম ও আমিনুর রহমান বলেন, তারা মাদক চোরাইসেন্ডিকেটের কোন প্রকার সহযোগিতা করেন না বা কোন অবৈধ কাজে জড়িত না। এ বিষয়ে কৈখালী ইউ,পি চেয়ারম্যান শেখ আব্দুর রহিম বলেন , আমি কোন ভাবে মাদকের সাথে আপোষ করিনা। যারা চোরাইসেন্ডিকেটের সাথে জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাই।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ