HEADLINE
সাতক্ষীরার উৎপাদিত টমেটো যাচ্ছে রাজধানী’সহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় সাতক্ষীরা সীমান্তে অপরাধ দমনে বিজিবি ও বিএসএফ এর পতাকা বৈঠক ঝাউডাঙ্গা হাইস্কুল জামে মসজিদের ওযুখানা নির্মাণ কাজ উদ্বোধন শ্যামনগরে বিদ্যুৎস্পর্শে কৃষকের মৃত্যু কাশ্মিরি ও থাইআপেল কুল চাষে সফল সাতক্ষীরার মিলন ঝাউডাঙ্গা সড়কে বাস উল্টে ১০জন আহত ঝাউডাঙ্গায় জমকালো আয়োজনে শুরু হচ্ছে পৌষ সংক্রান্তি মেলা কালিগঞ্জে শীতার্ত মানুষের পাশে ”বিন্দু” মাদ্রাসা শিক্ষক শামসুজ্জামানের বিরুদ্ধে ফের ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগ স্বামী বিবেকানন্দ দর্শন আমাদের মুক্তির পথ : সাতক্ষীরায় ১৬০তম জন্মবার্ষিকী উৎসবে আলোচকরা
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৪২ অপরাহ্ন

জনগন চাইলে আ’লীগকে কেউ পরাজিত করতে পারবে না: কৃষি মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার / ৭৩
প্রকাশের সময় : রবিবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২৩

বাংলাদেশ সরকারের কৃষি মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, আমরা পেয়েছি শেখ হাসিনার মত একজন সরকার। যার নেতৃত্বে আমরা দেশকে জাদুর ছোয়ায় এগিয়ে নিচ্ছি। বাংলাদেশ সরকার কৃষি ও জনবন্ধন উন্নয়নের সরকার। শেখ হাসিনার আমলে দেশে খাদ্যে সংসম্পন্ন করেছে। আমরা দেশে সার ও ডিজেলের দাম কমিয়ে রেখে কৃষকের উন্নয়ন করেছি। কৃষক পর্যায়ে সার ও বীজ প্রদান করা হচ্ছে। বর্তমানে দেশে ১০ ভাগ ভোজ্য তেল উৎপাদন করা হচ্ছে। যা এ সময় পুরো দেশের চাহিদা মেটাতো। কিন্তু বিএনপি সরকার আসার পর বাহিরে থেকে তেল আমদানি করায় বর্তমানে ২০/২৫ হাজার কোটি টাকার তেল ক্রয় করতে হয়। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে শেখ হাসিনার সরকার ৫০ ভাগ শরিষা তেল উৎপাদনের ব্যবস্থা করবে। বর্তমান উন্নত জাতের মাধ্যমে শরিষা, ধানের জাতের মাধ্যমে কম সময়ে অধিক পরিমান উৎপাদন করা হচ্ছে। গ্রীষ্মকালীন টমেটো উৎপাদন করে কৃষক লাভবান হচ্ছে দেশের অর্থনীতি বাড়ছে। দেশের ছেলে মেয়েরা শিক্ষিত হচ্ছে। তাদের জন্য দরকার শিল্প কারখানা। দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তিত করা গেলে দেশ আরো এগিয়ে যাবে। দেশের মানুষ কেউ গৃহহারা থাকবে না। ভিক্ষুকের দেশ থেকে আমাদের সরকার উন্নয়নশীল বাংলাদেশে রূপান্তিত করেছে। আমরা দেশেকে একটি উন্নত দেশ গড়তে। সেজন্য আপনাদের সমার্থন  ও ভোট কামনা করি। আগামী নির্বাচনে জনগন যাদেরকে ভোট দিবে তারাই ক্ষমতায় এসে দেশ পরিচালনা করবে। আমাদের ভোট না দিলে আমরা সালাম দিয়ে চলে যাব। জনগন চাইলে পৃথিবীর কোন শক্তি আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা থেকে সরাতে পারবে না। তাই আগামী নির্বাচনে আপনাদের ভোট কামনা করছি। একই সাথে সাতক্ষীরা-৩ আসনের প্রার্থী রুহুল হককে পুনরায় ভোট দিয়ে এলাকার উন্নয়ন অব্যাহত রাখবেন। 

রবিবার (৮ জানুয়ারী) বিকালে নলতা এ.এম.আর কলেজ মাঠে গণতন্ত্রের বিজয় দিবস ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। 

জনসভায় সম্মানিত অতিথির বক্তব্য দেন সাতক্ষীরা-৩ আসনের সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী অধ্যাপক ডাঃ আ.ফ.ম রুহুল হক, বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ রোকেয়া সুলতানা।

বক্তারা আরো বলেন, সরকার শহর গ্রাম পর্যায়ে নানামূখি উন্নয়ন করে চলেছেন। যার মধ্যে মানুষের মৌলিক অধিকারকে প্রধান্য দেওয়া হচ্ছে। শিক্ষা, স্বাস্থা, বাসস্থান সহ সকল অধিকার বাস্তবায়ন করে চলেছেন। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে স্বাধীনতার স্বপ্ন ভঙ্গ করেতে চেয়েছিলেন সেটি শক্ত হাতে তার কন্যা বাস্তবায়ন করছেন। সে লক্ষে আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার ঘোষনা দিয়েছেন। আজ ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে সবধরনের কাজ পরিচালনা হচ্ছে যা একটি দিন মানুষের কাছে অবিশ্বাস্য ছিল। কিন্তু স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি কখনো স্বাধীনতা স্বপক্ষের শক্তিকে ক্ষমতায় আসুক সেটি চাই না। তাই অপশক্তিকে আর মাথা উচু করতে দেওয়া যাবে না। আগামী ২০২৪ সালের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিজয়ের মাধ্যমে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে এখনই প্রতিজ্ঞবদ্ধ হতে হবে। গণতন্তের বিজয় আনার আহবান জানান বক্তরা। 

কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মাস্টার নরিম আলী মুন্সির সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক এনামুল হোসেন ছোটোর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এসএম জগলুল হায়দার, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ কে ফজলুল হক, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম। 

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মুজিবর রহমান, ডাঃ মোখলেছুর রহমান, দেবহাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মুজিবর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ ফারুক হোসেন রতন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহজান আলী, পৌর আওয়ামী লীগের শাহাদাত হোসেন, শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলন, জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক সীমা সিদ্দিকী, নলতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আনিসউজ্জামান খোকন, সহ-সভাপতি তারিকুল ইসলাম সহ আওয়ামী লীগের সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী এবং বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ