HEADLINE
সাতক্ষীরা সীমান্তে অপরাধ দমনে বিজিবি ও বিএসএফ এর পতাকা বৈঠক ঝাউডাঙ্গা হাইস্কুল জামে মসজিদের ওযুখানা নির্মাণ কাজ উদ্বোধন শ্যামনগরে বিদ্যুৎস্পর্শে কৃষকের মৃত্যু কাশ্মিরি ও থাইআপেল কুল চাষে সফল সাতক্ষীরার মিলন ঝাউডাঙ্গা সড়কে বাস উল্টে ১০জন আহত ঝাউডাঙ্গায় জমকালো আয়োজনে শুরু হচ্ছে পৌষ সংক্রান্তি মেলা কালিগঞ্জে শীতার্ত মানুষের পাশে ”বিন্দু” মাদ্রাসা শিক্ষক শামসুজ্জামানের বিরুদ্ধে ফের ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগ স্বামী বিবেকানন্দ দর্শন আমাদের মুক্তির পথ : সাতক্ষীরায় ১৬০তম জন্মবার্ষিকী উৎসবে আলোচকরা আ’লীগ নেতার বাড়িতে ডাকাতি, ১৫ লাখ টাকা ও ৩৪ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট 
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

যুদ্ধ

কবিঃ অহিদুজ্জামান টনি / ৬৭৭
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৩ মার্চ, ২০২২

কবিঃ অহিদুজ্জামান টনি

আমি দেখিনি যুদ্ধ,
যায় নি তো যুদ্ধে।
লড়াই করিনি শত্রুর বিরুদ্ধে,
শুধু গুরুজনের মুখে শুনেছি।

ইতিহাসের পাতায় পড়েছি,
আমি কল্পনায় যুদ্ধের ছবি এঁকেছি।
কখনো চোখের জলে বুক ভাসিয়েছি,
কখনো আনন্দে মেতেছি।

আমি শুনেছি এক অপেক্ষায় থাকা মায়ের কথা,
যার বুক ভরা সন্তান না ফেরার বেথা।
এক বিধবা বধূর স্বামী হারা কান্না,
লক্ষ বাঙালির রক্তের বন্যা।

পিতা হারা সন্তানের প্রতিশোধের আকাঙ্ক্ষা,
সেই অসহায় বালক যার নিস্পাপ সত্তা।
মানুষের স্বাধীনতা দেখবার কামনা,
লাশের পাশে শকুনের ডাক।

এসে বসেছে ঝাক ঝাক,
এমন সময় বাংলার বুকে এক সংগ্রামী নেতা।
যে এসে দিলো স্বাধীনতার ঘোষণা,
তার নাম ইতিহাসের পাতায় পাতায় গাঁথা।

তার একটি বাক্য দিয়েছিলো শত্রুর বুক কাঁপিয়ে,
বাঙ্গালী পড়েছি শত্রুর বিরুদ্ধে ঝাঁপিয়ে।
তাঁর দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পরে,
স্বাধীন বাংলা পেলাম ফিরে।

মুছে যায় মায়ের কান্না,
থেকে যায় সন্তান না ফেরার বেথা।
আমরা সেই বীর যোদ্ধাদের কখনো ভুলবো না,
তোমরা থাকবে প্রতিটি বাঙালির হৃদয়ে।

তোমরা থাকবে প্রতিটি বাঙালির স্বপ্নে,
তোমরা থাকবে এ দেশের জামিনে আসমানে,
তোমরা চিরকাল বাংলায় বেঁচে রবে।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ