HEADLINE
দরগাহপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ মাজেদের ইন্তেকাল কোরবানি ঈদে মসজিদ কমিটির গোশত বন্টনে দেবহাটার ৩৪ পরিবার বঞ্চিত! কলারোয়ায় প্রকাশ্যেই চলছে জমজমাট জুয়ার আসর : পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা প্রবাসীদের সুযোগ বাড়ান : মোমিন মেহেদী বুধহাটায় অসহায় ও রোগ যন্ত্রণায় কাঁতর রহমানকে সহায়তা প্রদান আশাশুনিতে চুরি যাওয়া মূর্তি উদ্ধারে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে: এএসপি জামিল আহমেদ সাতক্ষীরায় জমি দখলে ব্যর্থ হয়ে পিতা-পুত্রকে পিটিয়ে জখম মুখোশ পরিবর্তন করে মুখের আদলে সমাজ চাই কলারোয়ায় আশ্রয়ন প্রকল্পের উপকার ভোগীদের থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ কামার বায়সায় গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা!
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:০৫ পূর্বাহ্ন

চেতনার আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় বিলীন!

সোহারব হোসেন সাজু / ১৮৭
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১

যুগের পরিবর্তন একেবারে অস্বীকার করার উপায় নেই। যুগের পরিবর্তনে শিক্ষা, সিনেমা, সঙ্গীত, কৃষি, ফ‍্যাশান, বিজ্ঞান, ব‍্যাংকিং তথ্য প্রযুক্তি, নারী জাগরণ থেকে রান্না ঘর অব্দি, সবকিছুর আমূল পরিবর্তন হয়েছে। আগে যারে হালফ‍্যাশান বলত, এখন সেগুলো অনেক লেটেস্ট, সবকিছুই ডিজিটাল ফোর জি ফাইভ জি। বিগত ঈদে তো বাড়ির জন্য অন পিচ কিনতে হয়েছিল, অবশ‍্য মনে মনে আতঙ্কে ছিলাম, রিস্কি ফাবরিস্ক কিনা অবশেষে প্রবলেমের কোন কিছু ঘটেনি। সময়কে পেছনে ফেলে এ ভাবেই এগিয়েছে অনেক কিছু। বঙ্গবন্ধুর ছয় দফার ছয় বোতামের মুজিব কোট, এখন অনেক রঙে বাজারে চাউর হয়েছে মুজিব কোটে এখন ষোলটি বোতাম হয়েছে। এভাবেই জ্ঞান, বিজ্ঞানের ব‍্যাপক প্রসার, সবকিছুতেই পরিবর্তনের ছোয়া, শতাব্দীর শেষ প্রান্তে আধুনিকতা, অত‍্যাধুনিকের দোরগোড়ায়, একিই অবস্থা রাজনীতিক অঙ্গনে। বিশেষ করে আমাদের ক্ষমতারোহী ঐতিহ্যে আর গৌরবের ধারকবাহক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতা শ্রেণীভূক্ত কতিপয় ব‍্যাক্তি সমষ্টির মধ‍্যে এই পরিবর্তন লক্ষ‍্য করার মত। ছাত্রজীবনে ছাত্র লীগ করার সময় বড়দের কাছ থেকে দেখে শিখেছিলাম কিভাবে নেতৃত্বের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হয়। একদিক থেকে বোমা ককটেল হাতে বি,এন,পি ছাত্রদলের হামলা, আর অন‍্যদিকে বি,এন,পির লেলিয়ে দেয়া মারমুখী পুলিশের হুলিয়া মাথায় নিয়ে রাতদিন এককরে আপন সহোদরের মত পথ চলতে হয়। সেসব অগ্নিগর্ভ আন্দোলনে কখনো অনুভব হয়নি আমাদের একে অপরের সাথে রক্তের বন্ধন নেই, সেসময় বিএন পি,জামায়াত শিবিরের বহ্ন বোমা হামলায় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ নেতা কর্মীদের আন্দোলন থেকে একচুল পিছু হটাতে পারিনি। সেদিনের আওয়ামী লীগ, ছাত্র লীগের গগন বিদারী শ্নোগান, শেখ হাসিনার কর্মীরা এক হও লড়াই কর শ্নোগানে এক শেখ হাসিনার ইস্পাত কঠিন কর্মীরা আগুনের স্পূলিঙ্গের মত ঝাপিয়ে পড়েছে জীবন বাজি রেখে। একনায়ক, সমরিকজান্তার বিরুদ্ধে, শেখ হাসিনার নেতৃত্বের অজেয় ছাত্রলীগে আর তৃণমূলের আওয়ামী লীগের সাধারণ কর্মীরা প্রখর তপ্ত রৌদ্র, শীত বর্ষা উপেক্ষা করে একত্রিত ছিল আওয়ামী লীগের নেতাদের ডাকে, সেদিনের আওয়ামী লীগ নেতৃত্ব ছিল আমাদের চেতনার সর্বস‍্য, নেতৃত্বের নির্দেশ কর্মীদের কাছে বেদবাণী। কিন্তু আজ শেখ হাসিনার ভ‍্যানগার্ড সেই আন্দোলন সংগ্ৰামের অজেয় শক্তি খেয়ে না খেয়ে রাতদিন একভূত করা কর্মীরাই সবচেয়ে উপেক্ষিত। বর্তমানের মসনদরোহী আধুনিক ডায়াগ্ৰামের, ইউনিয়ন থেকে সংসদীয় চেয়ারের, ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগ নামিয় নেতৃত্বের কাছে, পদেপদে ব‍্যাহাত হয়েছে তাদের প্রত‍্যাশা, চিরচেনা নেতৃত্বর চেহারা এখন আচমকা অচেনা, পরিবর্তন হয়েছে আমূল পরিবর্তন শুধু চেয়ারে নয়, এইসব কুশীলবরা সূযোগ হলে বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের মেনুফেষ্ট ও গঠনতন্ত্র, দলীয় নীতি আদর্শ বিকিয়ে দিয়ে, পরিবারতান্ত্রিক, ব‍্যাক্তি উদ্দ‍্যেশ‍্যে বাস্তবায়ন করত। অনেক আগে থেকেই সুকৌশলে হালের নেতারা প্রকৃত আওয়ামী লীগ ছাত্রলীগ, যুবলীগের ত‍্যাগী কর্মীদের কে দলে একক সুবিধা ভোগের বাসনায় দুরে সরিয়ে দিয়েছে। নিজস্বার্থ অর্থ, সম্পদ আর ক্ষমতা কুক্ষিগত করার, মানসে দলের ভিতরে উপদল সৃষ্টি করেছেন। এদের কাছে আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনা একমাত্র ক্ষমতা আরহনের সাইন বোর্ড, এখন প্রত‍্যেক ইউনিয়নে দেখা যায় একাধিক দলীয় গ্ৰুপ, ক্ষমতাশীন গ্ৰুপ স্থানীয় জামায়াত, বি এন,পি,র সাইডের লোকজন নিয়ে প্রকৃত আওয়ামী লীগকে কোনঠাসা করে রেখেছে। এমনকি শেখ হাসিনার দেওয়া সরকারী ভি,জি,এফ থেকে সকল রেশোনিং সুবিধাসুমহ স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বার পর্যন্ত জামায়াত, বিএনপির লোকজনের ভিতর বন্টন করছেন। পরজিবি আগাছা, পরগাছা জামায়াত বিএনপি নিয়ে আওয়ামী লীগের লেগো বসনোর অপচেষ্টায়, সরকার কতৃক গৃহিত সকলসুবিধাদি থেকে ও প্রকৃত আওয়ামী লীগের কর্মীরা বঞ্চিত। আওয়ামী লীগ ও সরকারকে এরা ভোটে জেতার জন‍্য স্থানীয় জামায়াতকে ভোট ব‍্যাবসার পূজি invest হিসাবে বিনিয়োগ করে চলছেন। প্রকারন্তে আওয়ামী লীগ হয়েছে বঞ্জিত,আর এই অপকর্মের ঢাল হিসেবে দু,একটি সূবিধাভোগী আওয়ামী লীগের ম‍্যানেজ করে রেখেছে। উপজেলা বা সংসদীয় বিষয়গুলি এই একই ফর্মুলায় নিবিষ্ট চিত্তে এগিয়ে চলেছে নেতারা। দিনশেষে পরিবর্তনের এই শকট আওয়ামী লীগ কে কোন বন্দরে নিয়ে খালাশ করবে। সেটা আল্লাহ মাবুদ ই জানেন, বিগত ৭৩ তিয়াত্তর বছরের বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ তো এই আদর্শের আওয়ামী লীগ নয়, শিক্ষা, শান্তি, প্রগতির ছাত্র লীগ, আর গনতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, আর অসম্প্রদায়িক চেতনার আওয়ামী লীগ। এখন দেখছি জামায়াত, বি,এন,পি কম্বিনেশনের হাইব্রীড ফর্মুলায় আওয়ামী লীগ, এটা কেমন আওয়ামী লীগ প্রকৃত আওয়ামী লীগের পাশকাটিয়ে। দলের ভিতরে উপদল কি ভোটে জয়লাভ করার নয়া কৌশল, প্রকৃত আওয়ামী লীগ আপেক্ষায় থাক আমাদের এই রাজনৈতিক প্রাজ্ঞ, বিজ্ঞ মহাজন কৌশলীদের পরিবর্তনের পাশা খেলার শেষ সীমানায়। জয় শেখ হাসিনা, জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, জয় হোক জনতার।

লেখকঃ যুবলীগ নেতা


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ