কয়রায় মসজিদের জমি দখলের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

কয়রায় মসজিদের জমি দখলের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

কয়রা প্রতিনিধি ঃ শত বছরের আংটিহারা সানা বাড়ী জামে মসজিদের সম্পত্তি জবর দখলকারিদের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছেন মসজিদ কমিটির দাতা সদস্য আঃ মজিদ সানা। বুধবার সকাল ১১ টায় কয়রা প্রেস ক্লাবে লিখিত বক্তব্যে আঃ মজিদ সানা জানান, কয়রা উপজেলাধীন দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের আংটিহারা গ্রামে শত বছর পূর্বে ৪১ শতকের জমির উপর মসজিদটি নির্মাণ করেন তার পূর্ব পুরুষেরা । এছাড়া তার পূর্ব পুরুষ মরহুম আঃ হামিদ ও আত্তাপ আলী সানা এই মসজিদের নামে ৬৭ শতক জমি দান করেন। কিন্তু ৪১ শতক জমির উপর মসজিদ সহ পুকুর রয়েছে এবং বাকী জমিও মসজিদের দখলে আছে। লিখিত বক্তব্যে মজিদ সানা আরও জানান, উক্ত মসজিদের দখলীয় ৪১ শতক জমির উপর একই গ্রামের মাওঃ সোহরাব আলী সানা ও তার পুত্র রকিব সহ তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী মসজিদের সীমানার ঘেরা বেড়া কেটে দখলের চেষ্টা করেন। এসময় মসজিদ কমিটির নেতৃবৃন্দ বাঁধা দেওয়ায় মাওঃ সোহরাব বাহিনী কমিটির লোকজনের অনেকের মারপিট করে এবং ঘটনায় ২২/০৮/২০২৯ তারিখ কয়রা থানায় ১১ জনকে আসামী করে একটি মামলা করা হয়। যার নং জি আর ২১১/১৯। তিনি বলেন, আসামীগণ জামিন পেয়ে জোর পূর্বক আবারও মসজিদ পুকুরের মাছ ধরার চেষ্টা করে এবং সীমানার ঘেরা বেড়া ভাংচুর করে। কিন্তু মসজিদ কমিটি ও মুসাল্লিরা আবারও তার প্রতিবাদ করায় মাওঃ সোহরাব বাহিনী ২৯ অক্টোবর কয়রা উপজেলা প্রেসক্লাবে মসজিদ কমিটির বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। যাহা দৈনিক প্রবাহ পত্রিকায় মসজিদের কমিটি ও মুসাল্লিদের বাদ দিয়ে শুধু মাত্র আমাকে জড়িয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। আমি উক্ত সংবাদের নিন্দা ও তীব্র প্রতিবাদ জানাই। এছাড়া মাওঃ সোহরাব মসজিদের সম্পত্তি নিজের দাবী করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট অভিযোগ করলে তিনি দু’ পক্ষের কাগজ পত্র দেখে মসজিদের অনুকুলে কাগজ সঠিক আছে বলিয়া জানান। মজিদ সানা আরও জানান, শত বছরের পূর্বে নির্মিত অত্র মসজিদের সম্পত্তি রক্ষা করার জন্য তিনি সাংবাদিক এবং প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন