দেবহাটায় স্কুল ছাত্রীকে গনধর্ষনের অভিযোগে মামলা: আটক ২

দেবহাটায় স্কুল ছাত্রীকে গনধর্ষনের অভিযোগে মামলা: আটক ২

দেবহাটা প্রতিনিধি:: দেবহাটায় দশম শ্রেনীতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফুসলিয়ে গনধর্ষনের অভিযোগে দেবহাটা থানায় মামলা হয়েছে। জানাযায়, কুলিয়ার গোবরাখালী গ্রামের আশরাফুল ইসলামের পুত্র সুফিয়ান (২৮) এর সাথে বহেরা এটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর এক ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

গত শনিবার (১২ অক্টোবর) সকাল ১১ টার দিকে প্রেমিক সুফিয়ান প্রেমিকার স্কুলে যাওয়ার পথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বহেরা এলাকা থেকে একই গ্রামের মোশারফ মাস্টারের পুত্র পিকআপ ড্রাইভার জিল্লুর রহমান (২৭) এর পিকআপে গোবরাখালী সাইক্লোন সেল্টার সংলগ্ন নিজের বাড়িতে নিয়ে যায়। বাড়িতে সুফিয়ানের বৃদ্ধ দাদী একা থাকার সুযোগে প্রেমিক সুয়িয়ান বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে ধর্ষন করে। পরে জিল্লুর রহমান সহ আরো ২জন পর্যায়ক্রমে তাকে গনধর্ষন করে। এসময় তারা মেয়েটিকে কাউকে কিছু না জানানোর জন্য ভয় দেখিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। পরে স্কুল ছাত্রী বাড়িতে তার পরিবারকে বিষয়টি জানালে তার মা বাদী হয়ে দেবহাটা থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা নং- ০৭, তাং- ১৪-১০-১৯ ইং।

এঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দেবহাটা থানার ওসি (তদন্ত) উজ্জ্বল কুমার মৈত্র জানান, এএসআই রশিদুল আলম ও এএসআই সুজিত কুমারসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সোমবার দুপুর ১টার দিকে মামলার এজাহারনামীয় আসামী সুফিয়ান ও জিল্লুরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা গনধর্ষনের ঘটনায় থানায় মামলা হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে জানান, ঘটনাটিকে গুরুত্ব দিয়ে পুলিশ তদন্ত করছে। ইতিমধ্যে মামলার ২ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং অন্য আসামীদেরকে গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত আছে।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

সাতক্ষীরা বাইপাস সড়কের দূর্ঘটনা রোধে করনীয় (ভিডিও)