প্রকাশিত সংবাদে ভূক্তভোগীর বক্তব্য

প্রকাশিত সংবাদে ভূক্তভোগীর বক্তব্য

সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা, কালের চিত্রসহ বিভিন্ন পত্রপত্রিকা ও অনলাইন পত্রিকায় “দেবহাটায় ইসলাম ধর্ম গ্রহনকারী গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম করেছে স্বামীর স্বজনেরা” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে, দেবহাটার সদর ইউনিয়নের আজিজপুর গ্রামের আনছার আলী দেশে-বিদেশে মোট ৫টি বিবাহ করেছে। ইন্ডিয়ান এক হিন্দু নাগরিককে ফুঁসলিয়ে বাংলাদেশে নিয়ে এসেছে আনছার আলী। এমনকি আনছার আলী নিজে বাংলাদেশের বাসিন্দা হলেও সে ভারতের পাসপোট, আদার কার্ড, প্যান কার্ড ব্যবহার করে। এছাড়া সরকারি নীতিমালা না মেনে ভারতীয় নাগরিক ফিরোজা খাতুন অবৈধ ভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করে বসবাস করছে। আনছারের বড় স্ত্রী ভারতীয় পাসপোর্ট ধারী নাগরিক শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে আসলে গত মঙ্গলবার রাতে ছোট স্ত্রী ফিরোজার সাথে হাতাহাতি হয়। এতে বড় বউ আহত হলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়িতে আনা হয়। অপরদিকে একটি কুচক্রি মহলের প্ররোচনায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে আনছারের ছোট স্ত্রী ফিরোজা সখিপুর হাসপাতালে ভর্তি হয়। এমনকি সংবাদকর্মীকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমাকে, আমার পিতা সাবুর আলী, মাতা শরিফা বেগম, আমার ছোট ভাইয়ের স্ত্রী তহমিনা খাতুনকে উদ্দেশ্য মূলক ভাবে জড়িয়ে হয়রানী সহ আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করেছে। আমি উক্ত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বিনীত
হাসান আলী
আজিজপুর, দেবহাটা, সাতক্ষীরা।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন