হার্টে ছিদ্র শিলাকে বাঁচাতে সহযোগীতার আহবান

হার্টে ছিদ্র শিলাকে বাঁচাতে সহযোগীতার আহবান

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:: সাতক্ষীরা সদরের বাঁশদহা ইউনিয়নের হাওয়ালখালী(বটতলা) গ্রামের ভাটা শ্রমিক মহাসিন মোড়লের বড় মেয়ে শিলা খাতুন(২০)। হার্টে ছিদ্র নিয়ে দীর্ঘদিন বিছানায় শুয়ে শুয়ে যন্ত্রণায় ছটফট করছে সে। দিন দিন শরীর ফুঁলে যাচ্ছে। চলাফেরা করতে পারছে না।  ডাক্তার বলেছেন হার্টের অপারেশন করাতে হবে। তাতে প্রায় ৬/৭ লাখ টাকা খরচ হবে।

শিলার বাবা ভাটা শ্রমিক মহাসিন মোড়ল বলেন, কয়েক বছর আগে আমার মেয়েকে বিয়ে দিয়েছিলাম। শ্বশুর বাড়িতে সে মাঝে মাঝে অসুস্থ্য হয়ে যেতো। কোন কাজ করতে পারতো না। তখন আমরা তার অনেক চিকিৎসা করিয়েছিলাম। তবে সুস্থ্য করাতে পারিনি। কাজকর্ম করতে না পারায় আমার মেয়েকে জামাই তালাক দিয়েছে। এরপর আমার মেয়েকে বাড়িতে এনে চিকিৎসার জন্য ডাক্তার মানস কুমার মন্ডলের দারস্থ্য হয়েছিলাম। বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে তিনি বলেছেন মেয়ের হার্টে ছিদ্র হয়ে গেছে। দ্রুত ঢাকার হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল/ হৃদরোগ ইনস্টিটিউট/ পিজি হাসপাতালে নিয়ে হার্টের অপারেশন করাতে হবে। তাতে ৬/৭ লাখ টাকা খরচ হবে বলে ডাক্তার জানিয়েছেন।
আমি একজন ভাটা শ্রমিক। এতো টাকা আমি কোথায় পাবো। বিনা চিকিৎসায় আমার মেয়েটি দিনদিন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে। আপনারা আমার মেয়ের জন্য কিছু একটা করেন। অনেক হৃদয়বান মানুষ আছেন। আপনারা আমাকে একটু সাহায্য করেন। আপনাদের সাহায্যে আমার মেয়ে ইনশাআল্লাহ সুস্থ্য হয়ে যাবে।
যোগাযোগ ও সাহায্য পাঠাতে পারেন আপনিও…
বিকাশ(পারসোনাল): ০১৭৪৬-৬৪০৫৯৯
শিলার বাবা: মহাসিন মোড়ল
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন