তুলশী ড্রাইভারকে চাঁদা না দেওয়ায় পেট্রোল পাম্পের মালিক ও ম্যানেজারকে হয়রানি!

 তুলশী ড্রাইভারকে চাঁদা না দেওয়ায় পেট্রোল পাম্পের মালিক ও ম্যানেজারকে হয়রানি!

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:: সাতক্ষীরার আশাশুনির তুলশী ড্রাইভারকে চাঁদা না দেওয়ায় মহেশ্বকাটি এলাকার মেসার্স আন্না ফিলিং ষ্টেশনের নামের পেট্রোল পাম্পের মালিক ও ম্যানেজারকে হয়রানি করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শনিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন, শহরের পুরাতন সাতক্ষীরা এলাকার মৃত আরঙ্গজেব সরদারের ছেলে আব্দুল ওহাব সরদার।
তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, মহেশ্বরকাটি রাস্তার পার্শে আমার ছোট ভাই আবু সাঈদ শাহাজানের “মেসার্স আন্না ফিলিং স্টেশন” নামে একটি পাম্প রয়েছে। সেখানে আমার ছোট ভাই দীর্ঘদিন ধরে অত্যান্ত সুনামের সাথে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। সেখানে প্রায়ই বুধহাটা গ্রামের ড্রাইভার তুলসি বেনে ভোক্তা পরিদর্শক শেখ মনিরুজ্জামানকে সাথে নিয়ে পেট্রোল বাকি চান এবং বলেন এখানে ব্যবসা করতে হলে মাঝে মধ্যে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে হবে। চাঁদা না দেয়ায় ড্রাইভার তুলশী ক্ষিপ্ত হয়ে বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে চলে যান। তিনি বলেন, তুলসি ড্রাইভার আশাশুনি উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তার ড্রাইভার হওয়ার সুবাদে উপজেলা প্রশাসনকে ব্যবহার করে আমাদের নানাভাবে হয়রানির চেষ্টা চালাচ্ছেন।
তিনি আরো বলেন, আমরা যদি ওই তুলশী ড্রাইভারকে তার দাবিকৃত চাঁদার টাকা দিতাম তাহলে আমাদের বিরুদ্ধে কোন হয়রারি করা হতো না। আমরা সরকারী নিয়মনীতি মেনে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি অথচ তুলশী ড্রাইভার ও ভোক্তা পরিদর্শক শেখ মনিরুজ্জামান প্রায়ই আমাদের কাছে চাঁদা দাবী করেন। এতে আমরা অস্বীকার করায় সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে আমাদেরকে হয়রানি করছেন।
এমতাবস্থায় তিনি (ওহাব ) চাঁদাবাজ তুলশী ড্রাইভার ও ভোক্তা পরিদর্শক শেখ মনিরুজ্জামানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকসহসংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন