সুন্দরবনে অপরাধ নির্মূলে এসপিদের কাছে অত্যাধুনিক জলযান হস্তান্তর

সুন্দরবনে অপরাধ নির্মূলে এসপিদের কাছে অত্যাধুনিক জলযান হস্তান্তর

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: সুন্দরবনে অপরাধ নির্মূলে সাতক্ষীরা, খুলনা ও বাগেরহাট জেলার এসপিদের কাছে অত্যাধুনিক জলযান হস্তান্তর করেছেন পুলিশের খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খ: মহিদ উদ্দিন।
আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় খুলনা মহানগরীর জেলখানা ঘাটে আইজিপি কর্তৃৃক বরাদ্দকৃত ৩টি অত্যাধুনিক জলযান (স্পিডবোট) বিতরণ করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খ: মহিদ উদ্দিন, বিপিএম (বার)। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি (অ্যাডমিন এন্ড ফিন্যান্স) মোঃ হাবিবুর রহমান, বিপিএম এবং অতিরিক্ত ডিআইজি (অপারেশন্স এন্ড ক্রাইম) একে এম নাহিদুল ইসলাম, বিপিএম, খুলনা রেঞ্জসহ খুলনা রেঞ্জ অফিস ও খুলনা জেলার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ডিআইজি ড. খ: মহিদ উদ্দিন, বিপিএম (বার), পুলিশ সুপার, খুলনা এস.এম. শফিউল্লাহ্, বিপিএম, বাগেরহাট জেলার পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায়, পিপিএম এবং সাতক্ষীরা জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান (পিপিএম) বার এর নিকট জলযানের চাবি হস্তান্তর করেন।
ডিআইজি ড. খ: মহিদ উদ্দিন, বিপিএম (বার) বলেন, কোরবানির সময় চামড়া পাচার প্রতিরোধে পুলিশ হেডকোর্য়ার্টাস থেকে ইতিমধ্যে দেশের ৬৬০ জন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। জাতীয় সম্পদ রক্ষায় পুলিশ কঠোর অবস্থানে থাকবে।
এছাড়া তিনি বলেন, সুন্দরবনের জলদস্যু, বনদস্যুদের প্রতিহত করতে পুলিশ সর্বদা তৎপর। সম্প্রতি সাতক্ষীরা ও বাগেরহাট এলাকা থেকে বিভিন্ন অপরাধীদের আটক করা হয়েছে। বরাদ্দকৃত ৩টি অত্যাধুনিক জলযান সুন্দরবন এলাকায় পুলিশের কার্যক্রমকে কাজ আরো গতিশীল করবে।
তিনি আরও বলেন, ঘূর্নিঝড় আইলা, বুলবুল, ফনি, আম্পানের মত প্রাকৃতিক দূর্যোগে সুন্দরবনের কারনে উপকুলীয় এলাকায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমান অনেকাংশে কম হয়। সুন্দরবনের জীব-বৈচিত্র রক্ষায় এর ভিতরেই পুলিশের নিয়ন্ত্রণে ক্যাম্প স্থাপনের চিন্তাভাবনা রয়েছে। তাছাড়া ঐ এলাকায় অত্যাধুনিক বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হবে যার মাধ্যমে অপরাধীদের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ এবং তাদের আটক করা সম্ভব হবে।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

%d bloggers like this: