দেবহাটায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে পন্ড, দোষীদের জরিমানা

দেবহাটায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে পন্ড, দোষীদের জরিমানা

দেবহাটা প্রতিনিধি: দেবহাটায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে অভিশপ্ত বাল্য বিবাহের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে রাখি মন্ডল (১৬) নামের অপ্রাপ্ত বয়স্ক এক কিশোরী। সে বাগেরহাট জেলার রামপাল থানার পেপলবুনিয়া গ্রামের শংকর মন্ডলের মেয়ে। সম্প্রতি দেবহাটা উপজেলার সুবর্ণাবাদ গ্রামের অমিয় মন্ডলের ছেলে অঞ্জন মন্ডলের (২৩) সাথে কিশোরী রাখি মন্ডলের বিয়ে ঠিক করে তার পরিবার। বিয়ে দেয়ার জন্য সম্প্রতি রাখি মন্ডলকে দেবহাটার পারুলিয়া জেলিয়াপাড়ায় তার আত্মীয় নিপুন জুয়েলার্সের মালিক নিপুন মজুমদারের বাড়িতে আনা হয়। সোমবার রাতে গোপনে ওই নিপুন মজুমদারের বাড়িতেই কিশোরী রাখি মন্ডলের বিয়ের আয়োজন করা হয়। এসময় স্থানীয়রা দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীন ও দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহাকে বিষয়টি অবগত করলে রাতেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলাকালে দেবহাটা থানার এসআই আসিফ মাহমুদ ও এসআই হানিফ সহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছালে বাল্য বিয়েটি পন্ড হয়ে যায়। পরে দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরীন মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে কিশোরী কন্যাকে বাল্য বিয়ে দেয়ার অপরাধে রাখি মন্ডলের পিতা শংকর মন্ডলকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

%d bloggers like this: