এবার দীপিকা পাডুকোনকে জিজ্ঞাসাবাদ

এবার দীপিকা পাডুকোনকে জিজ্ঞাসাবাদ

Spread the love

বিনোদন ডেস্ক: চারিদিকে নানান গুঞ্জন, আর তার মধ্যেই আজ এনসিবি’র তদন্তকারীদের মুখোমুখি হচ্ছেন বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন। মাদক যোগে তাকে এই তলব। যদিও এ নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি দীপিকা। তবে বিষয়টি নিয়ে বেশ আলোচনা শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এরই মধ্যে গোয়ায় শুটিং পর্ব গুটিয়ে স্বামী রণবীর সিংহের সঙ্গে বিশেষ বিমানে বৃহস্পতিবার রাতেই মুম্বই পৌঁছেছেন দীপিকা। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবীরাও। শুধু তাই নয়, প্রভাদেবীতে দীপিকার বাসভবনের বাইরে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে মুম্বই পুলিশ।

জানা গেছে, দীপিকার ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশকে আজ তলব করা হয়েছে।

এনসিবি সূত্রের দাবি, করিশ্মা ও জনৈক ‘ডি’-এর হোয়াটসঅ্যাপ বার্তায় মাদক প্রসঙ্গ রয়েছে। এই ‘ডি’-এর খোঁজে রয়েছেন তদন্তকারীরা।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের দাবি, সুশান্তের প্রাক্তন ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহা জিজ্ঞাসাবাদের মুখে নামী অভিনেত্রীদের মাদক যোগের কথা জানিয়েছেন। রিয়া চক্রবর্তীও অনেকের নাম সামনে এনেছেন। সেই সূত্রেই এসেছে সারা ও রাকুলের নাম। কর্ণ জোহরের ধর্ম প্রোডাকশন সংস্থার কর্মী ক্ষিতিজ রবিপ্রসাদকেও আজ ডেকে পাঠিয়েছে এনসিবি।

বলিউডের আর এক অভিনেত্রী রাকুল প্রীত সিংহকেও মাদক যোগের বিষয় নিয়ে আজই জিজ্ঞাসাবাদ করবেন এনসিবি’র গোয়েন্দারা।

এ দিকে, মাদক চক্রের পান্ডা হিসেবে পরিচিত কমলজিৎকে গ্রেফতার করেছে এনসিবি। একটি সংবাদমাধ্যমের দাবি, জেরার মুখে টেলিভিশন জগতের অন্তত ২০ জনের নাম প্রকাশ করেছেন ওই মাদক ব্যবসায়ী।

যদিও প্রশ্ন উঠেছে, নরেন্দ্র মোদী সরকারের কৃষি বিলের বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে কৃষক বিক্ষোভের ঘোষিত কর্মসূচি থেকে নজর ঘোরাতেই বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রীদের ডাকা হয়েছে?

এছাড়া গত জানুয়ারিতে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে বামপন্থী ছাত্রদের উপর হামলার প্রতিবাদে পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন দীপিকা। আহত ছাত্রছাত্রীদের দেখতে গিয়েছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ে। ওই হামলায় অভিযোগের আঙুল উঠেছিল এবিভিপি’র দিকে। সঙ্ঘ পরিবারের রাজনীতির সঙ্গে সেই দূরত্বের কারণেই দীপিকাকে নিশানা করা হচ্ছে বলেও অনেকে সন্দেহ করছেন।

শুধু দীপিকাই নন, রাকুল প্রীত সিংহ, সারা আলি খান, শ্রদ্ধা কাপূরদের মত বড় বড় তারকাদের তলব করে যেভাবে জল ঘোলা করা হচ্ছে তাতে এর পেছনে কোনও ভিন্ন রাজনীতি কাজ করছে কি না, সে প্রশ্নও উঠেছে।

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তকে ঘিরে বিহার ও মহারাষ্ট্র সরকারের সংঘাত সামনে এসেছিল। নরেন্দ্র মোদী, নীতীশ কুমারদের দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, বিহারের ভোটের কথা মাথায় রেখে মৃত্যু তদন্ত নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে। সুশান্তের পরিবারের পক্ষে ওঠা অভিযোগগুলো নিয়ে এই মুহূর্তে সিবিআই, ইডির তৎপরতা দেখা না গেলেও প্রতিদিন সংবাদ শিরোনামে এনসিবি। অভিনেতাকে ঘিরে মূল তদন্ত পথ হারাচ্ছে কিনা, তাও আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।
সূত্র : আনন্দবাজার

Print Friendly, PDF & Email
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন