শ্যামনগরের আটুলিয়ার জমি দখলের উদ্দেশ্যে ৩ জন পিটিয়ে আহত

শ্যামনগরের আটুলিয়ার জমি দখলের উদ্দেশ্যে ৩ জন পিটিয়ে আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি :: শ্যামনগরের আটুলিয়ায় অবৈধভাবে গায়ের জোরে সম্পত্তি দখলের উদ্দেশ্যে গভীর রাতে হামলা চালিয়ে একই পরিবারের ৩ জন আহত আহতের ঘটনা ঘটিয়েছে ভূমিদস্যুরা। আহতরা হলেন, বাদুড়িয়া গ্রামের গোলাম মোস্তফার স্ত্রী মনোয়ারা খাতুন (৪০), তার পুত্র আব্দুল হামিদ ও সাঈদ। আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় শ্যামনগর থানায় মনোয়ারা খাতুন এজাহার দাখিল করেছেন।
এজাহার সূত্রে প্রকাশ, মনোয়ারা খাতুন ও তাদের পরিবারের সদস্যদের জমি অবৈধ দখল সহ বিভিন্ন প্রকার হুমকি প্রদানের প্রেক্ষিতে অত্র এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যু মোহর আলী গংয়ের বিরুদ্ধে শ্যামনগর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। সাধারণ ডায়েরি করায় ক্ষিপ্ত হয়ে গত ২১ জুলাই রাত্র সাড়ে ৯ টার দিকে প্রতিপক্ষ হাওয়ালভাঙ্গী গ্রামের সুরাত আলীর পুত্র কুখ্যাত ভূমিদস্যু মোহর আলী, বাদুড়িয়া গ্রামের মোবারক হোসেন, নঈমুদ্দিন সানার পুত্র হাবিবুর সানা, আবু সিদ্দীক, আদম আলী ও মুরাদ হোসেন এক জোট হয়ে দা, লাঠি ও লোহার শাবল ইত্যাদি নিয়ে মনোয়ারার বাড়িতে অনাধিকার প্রবেশ করে গালিগালাজ করতে থাকে। অবৈধভাবে জমি জবর দখল করতে এক পর্যায়ে মোহর আলীর নেতৃত্বে তারা মনোয়ারা খাতুনকে সাদা কাগজে স্বাক্ষর না করাতে পেরে ক্ষিপ্ত হয়। এর বাধা দিতে গিয়ে তারা সন্ত্রাসী কায়দায় এলোপাতাড়িভাবে মনোয়ারার পুত্র আব্দুল হামিদকে খুন করার উদ্দেশ্যে মারাত্মক আঘাত করে হাড়ভাঙ্গা গুরুতর জখম করে। মনোয়ারার সেজো ছেলে সাঈদকে লাঠি দ্বারা মারাত্বক মারপিট করা হয়। এ সময় মনোয়ারা খাতুন তাদের এহেন কর্মকান্ডে বাঁধা দিতে গিয়ে তাদের আঘাতে নীলা মারাত্মক জখম হয়। ঘরে থাকা আলমারির তালা ভেঙে ৫০ হাজার টাকা, দলিলপত্রসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তারা চুরি করে নিয়ে যায়। সে সময় হামলাকারীদের হাত জীবনে রক্ষার জন্য পুলিশের ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় শ্যামনগর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন