আশাশুনিতে অপহরণের দু’দিন পর ভিকটিম উদ্ধার, অপহরণকারী আটক

আশাশুনিতে অপহরণের দু’দিন পর ভিকটিম উদ্ধার, অপহরণকারী আটক

আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধি  :

আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর থেকে কলেজ ছাত্রীকে অপহরণের তিন দিনের মধ্যে পুলিশ অপহৃতাকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে আটক করেছে। সোমবার বিকালে আনুলিয়া ইউনিয়নে নানা বাড়ি থেকে অপহরণকারীকে আটক ও ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়।
থানা, ভিকটিমের অভিভাবক ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, প্রতাপনগর গ্রামের ইকবাল মাহমুদ সরদারের কন্যাকে কুড়িকাহুনিয়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের পুত্র মালেক মোড়ল (২১) দীর্ঘদিন যাবৎ উত্যক্ত ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আসছিল। প্রস্তাবে রাজী না হয়ে ভিকটিম বিষয়টি পিতাকে জানালে মেয়ের পিতা উত্যাক্তকারীর পিতাকে গিয়ে উত্যাক্ত না করতে ব্যবস্থা নিতে জানান। এতে অপহরণকারী মালেক মোড়ল, তার সহযোগি রেজাউল ঢালীর পুত্র মহিদ ও মৃত খোকন সানার পুত্র রুহুল আমিন ক্ষিপ্ত হয়ে অপহরণ করে বিয়ে করবে বলে হুমকী দেয় মেয়েকে। এরই জেরধরে ১০ জুলাই সন্ধ্যায় মেয়ে বাড়ির সামনে গেলে অপহরণকারীরা মোটর সাইকেলে তাকে জোর পূর্বক উঠিয়ে নিয়ে মুখে কাপড় বেধে পালিয়ে যায়। মেয়ের চিৎকারে তার পিতা ও স্বাক্ষীরা এগিয়ে গেলেও তাদেরকে আটকাতে পারেননি। এব্যাপারে ইকবাল মাহমুদ বাদী হয়ে মালেকসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন। এএসআই কবির হোসেন সোমবার অভিযান চালিয়ে অপরহরণকারীকে আটক ও ভিকটিমকে উদ্ধার করেন। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদেরকে থানায় আনা হয়েছে।

এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

%d bloggers like this: