কপিলমুনির দাপুটে যাত্রাশিল্পী রঞ্জন দাশ এখন ফুটপাতের পান বিক্রেতা!

কপিলমুনির দাপুটে যাত্রাশিল্পী রঞ্জন দাশ এখন ফুটপাতের পান বিক্রেতা!

প্রবীর জয়, কপিলমুনিঃ এক সময়ের দক্ষিণ জনপদের ডাকসাইটে বিবেক অভিনেতা ও দাপুটে যাত্রাশিল্পী রঞ্জন দাশ এখন ফুটপাতের পান বিক্রেতা। বলাযায় তার জীবন চলে পান বিক্রী করে। কপোতাক্ষ ভাগ্যলক্ষীসহ বিভিন্ন যাত্রা দলে তিনি একসময়ে বিবেকের অভিনয় করতেন। কাহিনীতে যখন নানা অবিচার সংঘটিত হতো তখন তিনি বিবেকের গান নিয়ে স্টেজে উঠে আসতেন। মানুষ মন্ত্রমুগ্ধের মত তার গান শুনতো। সর্বপরী তিনি ছিলেন এলাকার সংঙ্গীত প্রিয় মানুষের অতি চেনা মুখ। জানাযায়, খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়নের হরিদাশকাটি গ্রামের মৃতঃ আত্নারাম দাশের পুত্র রঞ্জন দাশ। সংগত কারণে তার সাথে আলাপচারিতার মধ্য উঠে আসে তার জীবনের স্মৃতিবহ কাহিনী। সেই কবে পিতা মরে গেছে তা আজ আর মনে নেই তার। তবে মনে পড়ে একবার তার জ্বর হয়েছিল। গ্রামের কালি ডাক্তারকে ডেকে নিয়ে এসেছিলেন তিনি। সারারাত বসে ছিলেন পিতার শিহরে। পাঁচ পুত্র ও দুই কন্যার জনক রঞ্জন দাশ। বিগত বছর চারেক আগে স্ত্রীকে হারিয়ে এখন নিঃসঙ্গ জীবন যাপন তার। মেয়েদেরকে বিয়ে দিয়েছেন। ছেলেরা যার যার মত আলাদা। তবে চতুর্থ পুত্র তারক তাকে একটু দেখাশুনা করেন। একপর্যায় তার সাথে আলাপকালে তিনি একটু  হেসেই বলেন, এক সময় যাত্রা গানের কদর ছিল বটে। কদর ছিল আমারমত রঞ্জন দাশের। এখন আর সে দিন নেই। সোনালী দিন গুলো হারিয়ে গেছে জীবন থেকে। এখন শুধুই অপেক্ষা শেষ বিদায়ের।

Print Friendly, PDF & Email

%d bloggers like this: