দেবহাটায় গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা, লম্পটের বিরুদ্ধে অভিযোগ!

দেবহাটায় গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা, লম্পটের বিরুদ্ধে অভিযোগ!

মাহমুদুল হাসান শাওন,দেবহাটা: দেবহাটার কাজিমহল্যা গ্রামের এক বাড়িতে গৃহবধূকে (২২) একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়ে ব্যার্থ হয়েছে আফজাল হোসেন নামের এক লম্পট।
লম্পট আফজাল হোসেন চকমোহাম্মাদালীপুর গ্রামের আদর আলীর ছেলে। রবিবার সকালে কাজিমহল্যা গ্রামে ওই গৃহবধূর বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। সেসময়ে বাড়ীতে একা ছিলেন গৃহবধূ। এঘটনায় ওই ভিকটিম বাদী হয়ে দেবহাটা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অন্যদিকে ঘটনার পর থেকে লম্পট আফজাল নিজেকে বাঁচাতে উল্টো ভিকটিম গৃহবধূ ও তার শিশু কন্যাকে হত্যার হুমকি দিয়ে চলেছে। পাশাপাশি একটি চক্রও লম্পটকে বাঁচাতে বিভিন্ন মহলে দৌড়ঝাপ ও তদবীর শুরু করেছে। ভিকটিম গৃহবধু জানান, সখিপুর ইউনিয়নের কাজিমহল্যা গ্রামে এক শিশুকন্যাকে নিয়ে স্বামীর সংসার করছেন তিনি। রবিবার সকালে তার স্বামীকে খোঁজার নাম অজুহাতে তাদের বাড়ীতে আসেন লম্পট আফজাল। তখন তার স্বামী বাড়ীতে ছিলেননা। সেসময়ে লম্পট আফজাল আকর্ষিক তাদের ঘরে প্রবেশ করে পানি খেতে চায়। একপর্যায়ে তিনি গ্লাসে করে পানি দিতে গেলে আফজাল তাকে জাপটে এবং গলাচেঁপে ধরে ঘরের মেঝেতে ফেলে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।
এসময় শ্বাসরোধ করে গলা চেঁপে ধরায় ভিকটিম গৃহবধূর মুখ থেকে রক্ত বের হতে থাকে। কিছুক্ষন প্রচেষ্টার পর তিনি চিৎকার করতে সক্ষম হলে তাকে আহত অবস্থায় ফেলে পালিয়ে যায় লম্পট আফজাল।
পরে মোবাইল ফোনে স্বামীসহ স্বজনদের বাড়ীতে ডেকে নেন তিনি। এঘটনার পর বেলা ১১টার দিকে দেবহাটা থানায় এসে ভিকটিম গৃহবধূ বাদী হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
পাশাপাশি নিকৃষ্টতম এমন জঘন্য ঘটনার নায়ক আফজালের শাস্তি নিশ্চিতের জন্যও পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভিকটিম ও তার পরিবার।
এব্যাপারে দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা জানান, অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আসামী যেই হোক ছাড় দেওয়া হবে না। তিনি আরো বলেন, দেবহাটা থেকে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, নারী শিশু নির্যাতন সহ সকল প্রকার অপরাধ নির্মূলে সব ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলা করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

%d bloggers like this: