কেশবপুরে ফুটপাত দখলে নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি

কেশবপুরে ফুটপাত দখলে নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি

উৎপল দে,স্টাফ রির্পোটারঃ যশোরের কেশবপুরে ফুটপাত দখলে নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি হচ্ছে। অনুমোদনবিহীন এই ব্যবসা চলছে। রাস্তার ধারে যেনতেনভাবে ফেলে রাখা হচ্ছে সিলিন্ডার। এতে যে কোনো সময় দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকলেও এ নিয়ে প্রশাসনের কোনো পদক্ষেপ চোখে পড়েনি। কেশবপুর শহরসহ বিভিন্ন এলাকায় ফুটপাত দখলে নিয়ে রাস্তায় দেখা যায় ইলেকট্রনিক্স,মুদি দোকান উপহার সামগ্রী দোকান, শোরুমের সাথে চলছে গ্যাস সিলিন্ডারের। শহরের বাইরেও সব জায়গায় সিলিন্ডার গ্যাস। ব্যাপক চাহিদা আর লাভের বিষয়টি মাথায় রেখে কেশবপুর প্রতিনিয়ত বাড়ছে এর ব্যবসা। সময়ের সঙ্গে ডিলার যেমন বেড়েছে । সরেজমিনে দেখা যায়, নির্দিষ্ট গুদামে না রেখে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় খোলা স্থানে রাখা হয়েছে গ্যাস সিলিন্ডার। রাস্তার পাশেই চলছে বিক্রি। বর্তমানে এই ব্যবসা শহর গ্রামের অলিগলিতেও পৌঁছে গেছে। আবাসিক এলাকাতেও যত্রতত্র এলপি গ্যাস সিলিন্ডার মজুদ রাখা হচ্ছে। ফলে যে কোনো মুহূর্তে দুর্ঘটনার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এসব দোকানের বেশিরভাগ অনুমোদনহীন। যারা অনুমোদন নিয়েছে তারাও মানছে না নিয়মনীতি।কেশবপুর উপজেলার হাসানপুর, প্রতাপপুর, ভান্ডার খোলা, সাগর দাঁড়ি, চিংড়া, ত্রিমোহনী, পাজিয়া, মঙ্গল কোট বাজার ঘুরে দেখা গেছে গ্যাস সিলিন্ডারের বিক্রয় করতে গেলে অগ্নিনির্বাপক এর সিলিন্ডার নেই কোন দোকানেফলে কেশবপুর উপজেলার প্রায় দোকানদার ও ক্রেতারা ঝুঁকির মধ্যে আছে। কেশবপুর সম্মিলিত সাংষ্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সহকারি অধ্যাপক মশিউর রহমান জানান, জনস্বার্থে যত্রতত্র গ্যাস সিলিন্ডার রাখা বন্ধে আইপ্রয়োগকারি সংস্থার হস্তক্ষেপ জরুরী।

Print Friendly, PDF & Email

%d bloggers like this: