রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৪:৫৩ অপরাহ্ন

১১ বছরে পদার্পন করলো ‘দৈনিক কালের চিত্র’ পত্রিকা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি / ৫৯
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৭ জুন, ২০২২

পাঠকের নিরন্তর ভালোবাসা নিয়ে প্রতিদিন কাকডাকা ভোরে দৈনিক কালের চিত্র কালো অক্ষরের পৃষ্ঠার ভাজে হাজির হচ্ছে আমাদের সামনে। গত এক দশক ধরে দৈনিক কালের চিত্র’র এই বিরামহীন প্রকাশনা সাতক্ষীরা অঞ্চলের সাংবাদিকতাকে গতিশীল করে তুলেছে। পত্রিকাটি সকল সময়ে মুক্তিযুদ্ধ, ভাষা আন্দোলনের মতো অনুসঙ্গকে কোনভাবেই কলূষিত হতে দেয়নি। একইসাথে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দূর্নীতি, সমাজের বিশৃংখলার বিরুদ্ধেও পত্রিকার শক্তিশালী অবস্থান এ অঞ্চলের পাঠক সমাজকে সমৃদ্ধ করেছে।
শুক্রবার সাতক্ষীরার বহুল প্রচারিত নন্দিত পত্রিকা দৈনিক কালের চিত্র’র প্রতিষ্ঠার ১০ বছর পূর্তি ও ১১ বছরে পদার্পন উপলক্ষ্যে সাতক্ষীরা এলজিইডি মিলনায়তনে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে এসব কথা তুলে ধরেন অভ্যাগত অতিথিরা। তারা বলেন, এই পত্রিকা আমাদের দিক নির্দেশক। এই পত্রিকা সমাজকে সঠিক পথে এগিয়ে নেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে গনতন্ত্র এবং দেশে উন্নয়ন বারবার প্রশংসিত হচ্ছে। পত্রিকাটির সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ প্রশাসক মোঃ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডা. আফম রুহুল হক এমপি। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ্। সংক্ষিপ্ত ভাষনে তারা বলেন, আমরা পত্রিকাটি প্রতিদিন পাঠ করে যা জানতে পারি তা হলো, দৈনিক কালের চিত্র সমাজের কোন নেতিবাচক বিষয়ের সাথে আপোষ করে না বরং সমাজ ও রাষ্ট্রের সকল ইতিবাচক দৃষ্টান্ত তুলে ধরে জনকল্যানে কাজ করে। এ প্রসঙ্গে তারা আরও বলেন, স্বপ্নের সেতু পদ্মা সেতু উদ্বোধনের প্রাক্কালে পত্রিকাটি নিজের অবস্থানকে পরিষ্কার করে দেশের উন্নয়ন সফলতাকে তুলে ধরেছে। এই পত্রিকাটি শতায়ু হবে এমন প্রত্যাশা আমাদের। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সমাজের দর্পন হিসাবে দৈনিক কালের চিত্র সব খবর তুলে ধরে গনতান্ত্রিক সেবা দিচ্ছে। নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে এমনকি কোভিড-১৯ এর মতো ভয়ংকর সময় পার করেও পত্রিকাটি এখনও পাঠক সমাজের টেবিলে পৌছে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ভারতে মহানবী (সাঃ)কে নিয়ে যে কট‚বাক্য উচ্চারন করে নুপুর শর্মা ধৃষ্টতার পরিচয় দিয়েছে তারও সমালোচনা করে বাংলাদেশের সকল সংবাদপত্রের মতো দৈনিক কালের চিত্রও প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। স্বাধীনতার সুবর্নজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশে অতিথি হিসাবে আসায় দেশের বিভিন্ন স্থানে নানা অঘটন ঘটলেও সাতক্ষীরাবাসী বিদেশী মেহমানকে সম্মানিত করতে সব উদ্যোগ গ্রহন করেছিল। দৈনিক কালের চিত্র সহ সকল পত্রিকা এই তথ্য তুলে ধরে আমাদের সমাজকে এগিয়ে নিয়েছে। তিনি আরও বলেন, প্রমত্তা নদী পদ্মার ওপর সেতু নির্মিত হয়েছে এবং দেশের দক্ষিনাঞ্চলের ২১টি জেলায় ব্যবসা বানিজ্য, রোগীর চিকিৎসা এবং সাধারন নাগরিকদের যাতায়াতের যে সুবর্ন সুযোগ প্রতিষ্ঠিত হলো তার সক্ষমতা বিস্তারিতভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছে কালের চিত্র। তিনি বলেন, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের মধ্যে কোন বিভেদ না রেখে এক ও অভিন্ন পথে অগ্রসর হয়ে দেশের সংবাদপত্রকে আরও এগিয়ে নেবে বলে আমি বিশ^াস করি। দৈনিক কালের চিত্র মহান মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে কথা বলে যাবে। আমরা বঙ্গবন্ধুর ডাকে স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি আর তার সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বের বাংলাদেশের উন্নয়নের রোল মডেলে পরিনত হয়েছে। কালের চিত্র সহ দেশের পত্রপত্রিকা এই বিষয়টিকে ধারন করবে বলে বিশ^াস করি।
অনুষ্ঠানের সভাপতি ও জেলা পরিষদ প্রশাসক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, দৈনিক কালের চিত্র তার সকল কর্মযজ্ঞের মোহনা হিসাবে পত্রিকাটিকে গড়ে তুলেছে। পত্রিকা প্রকাশনার পথ কখনও সহজ নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই পত্রিকাটি পাঠক নন্দিত হয়ে উঠেছে। পত্রিকাটি সত্যকে সত্য আর মিথ্যাকে মিথ্যা বলে সমাজের কল্যান কাজ করে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়নকে আরও অনুপ্রানিত করার কাজেও নিয়োজিত রয়েছে পত্রিকাটি।
সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রেজা খান বলেন, আমরা সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় বিশ^াস করি। দৈনিক কালের চিত্র সেই স্বাধীনতাকে ধারন করে সমাজের সকল অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে এমন প্রত্যাশা আমাদের।
বিশেষ অতিথি জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশাররফ হোসেন মশু বলেন, অধ্যক্ষ আবু আহমেদ নিজেই একজন মুক্তিযোদ্ধা। তার কাছ থেকে আমরা অবশ্যই দেশপ্রেমের ও সমাজ উন্নয়নের কথা শুনতে চাই। তার সেই লেখা আমরা দেখতে চাই। তিনি বলেন, আমরা পাঠক সমাজ পত্রিকাটিকে সব সহায়তা দিয়ে যাবো।
বিশেষ অতিথি জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি এফবিসিসিআইয়ের সাবেক নেতা শেখ আজহার হোসেন বলেন, আমরা দৈনিক কালের চিত্রকে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি হিসাবে দেখে আসছি। অধ্যক্ষ আবু আহমেদ এই শক্তিকে কাজে লাগিয়ে তিনি গনতান্ত্রিক সমাজ গঠনে ভ‚মিকা রাখছেন। সাতক্ষীরা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু বলেন, দৈনিক কালের চিত্র আমাদের প্রানশক্তি যোগায়। এর খবর পাঠ করে আমরা অত্যন্ত প্রীত হই। আমরা পত্রিকাটির দীর্ঘায়ু কামনা করি।

বিশেষ অতিথি দৈনিক দৃষ্টিপাত সম্পাদক জিএম নূর ইসলাম বলেন, প্রতিদিন সকালে পাঠকের হাতে একটি দৈনিক সংবাদপত্র পৌছে দেওয়ার কাজটি কিন্তু মোটেই সহজ নয়। এর জন্য অনেক কর্মযজ্ঞ পালন করতে হয়। দৈনিক কালের চিত্র সম্পাদক ও আমরা সেই চেষ্টা করে পাঠকের চাহিদা পূরনের চেষ্টা করি। সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আ হ ম তারেক উদ্দিন বলেন, নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠায় দৈনিক কালের চিত্রের বলিষ্ট ভূমিকা সর্বমহলে প্রশংসিত। সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ আনিসুর রহিম বলেন, সংবাদপত্র প্রকাশ করা অত্যন্ত ঝুকিপূর্ন কাজ হলেও আমরা সতর্কতার সাথে তা করার চেষ্টা করে থাকি। এমন কোন খবর আমরা প্রকাশ করতে রাজী নই যা সমাজকে কলূষিত করে। সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রামকৃষ্ণ চক্রবর্তী বলেন, আমার স্যার অধ্যক্ষ আবু আহমেদ রাত সাড়ে তিনটা পর্যন্ত কাজ করে কালের চিত্র প্রকাশ করে বাড়ি ফেরেন। বাকস্বাধীনতা ও সমাজ উন্নয়নে এটি একটি বড় অবদান। সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সর্বশেষ সাধারন সম্পাদক মোঃ আলী সুজন বলেন, দৈনিক কালের চিত্র শতবর্ষী হয়ে উঠুক এই প্রত্যাশা আমাদের। এই পত্রিকার কাছ থেকে আমরা সমাজ উন্নয়ন ও মুক্তিযুদ্ধের কথা বারবার জানতে চাই। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন এনটিভির সুভাষ চৌধুরী, টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের আহবায়ক আবুল কাশেম, সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো: মিজানুর রহমান, ছাত্রলীগ নেতা তাওহিদ হাসান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সম্প্রতি বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত প্রবীন সাংবাদিক সুভাষ চৌধুরীকে ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানানো হয়। অনুভ‚তি জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, সংবাদপত্র গতিশীল। এই গতিময়তাকে ধরে রাখতে আমরা কাজ করতে চাই। সরকারের উদার গনতান্ত্রিক মনোভাবের কারনে দেশে এখন প্রতিদিন ৫৭৫টি দৈনিক পত্রিকা প্রকাশিত হয় এবং ৪২টি টিভি চ্যানেল অন এয়ার হয়। এর আগে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দৈনিক কালের চিত্র সম্পাদক ও প্রকাশক বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ আবু আহমেদ। তিনি বলেন, আমরা পাঠকের ভালবাসা নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই। আমরা মুক্তিযুদ্ধ এবং ভাষা আন্দোলন সহ বাঙালির দুই প্রানসম্পদ নিয়ে কোন সমালোচনা সহ্য করতে রাজী নই। কোভিড-১৯ ও পরবর্তীতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে সারা পৃথিবীর মতো বাংলাদেশেও তার খারাপ প্রভাব পড়েছে। আমরা এ বিষয়টি মাথায় রেখেই নিয়মিত সংবাদ পরিবেশন করে যেতে চাই। দেশটিভির শরীফুল্লাহ্ কায়সার সুমনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কালের চিত্র’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সম্পাদকের হাতে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান, পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, দৈনিক দৃষ্টিপাত সম্পাদক জিএম নূর ইসলাম, দৈনিক পত্রদূতের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক লায়লা পারভিন সেঁজুতি, সাপ্তাহিক সুর্যের আলো সম্পাদক আব্দুল ওযারেশ কান চৌধুরী পল্টু, টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সদস্য সচিব আমিনা বিলকিস ময়না, দৈনিক কল্যানের কাজী শওকত হোসেন ময়না, দৈনিক নয়া দিগন্তের জেলা প্রতিনিধি শহীদুল হক রাজু, বীর মুক্তিযোদ্ধা দৈনিক জনতার সাংবাদিক কালিদাস কর্মকার, ডিবিসি টিভি ও ডেইলি অবজারভারের প্রতিনিধি জিলল্লুর রহমান, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটু ও সাধারন সম্পাদক মাহমুদুল হাসান শাওন প্রমুখ। এসময় অতিথিবর্গ কেক কেটে জন্মদিনের ১১ বছরে পদার্পনের সূচনা করেন।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ