বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন

সারা দেশে ১০০ টাকায় সয়াবিন তেল বেচবে টিসিবি

রিপোটারের নাম / ৯২
প্রকাশের সময় : সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে চলমান কঠোর বিধিনিষেধে নিম্ন আয়ের মানুষের কাছে কম দামে পণ্য দিতে আবার ভ্রাম্যমাণ ট্রাকে বিক্রির কার্যক্রম শুরু করছে সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। কাল সোমবার এ কার্যক্রম শুরু করা হবে। সারা দেশে ৪৫০টি ট্রাকে করে কম দামে সয়াবিন তেল, চিনি ও মসুর ডাল বিক্রি করবে টিসিবি।

টিসিবির পক্ষ থেকে আজ রোববার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। টিসিবি বলছে, কাল থেকে শুরু হওয়া এ কার্যক্রম চলবে ২৯ জুলাই পর্যন্ত। এর মধ্যে ঈদুল আজহার ছুটিতে এ কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। টিসিবি ছাড়াও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও ট্রাকে করে ন্যায্যমূল্যে পণ্য বিক্রি করা হয়। সর্বশেষ গত ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে ট্রাকে কম দামে পণ্য বিক্রি করেছিল টিসিবি। গত ১৯ জুন তা বন্ধ হয়ে যায়। এখন ঈদুল আজহা সামনে রেখে আবার এ কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে টিসিবি।

টিসিবির এবার ট্রাকে প্রতি কেজি চিনি ও মসুর ডাল ৫৫ টাকায় এবং প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১০০ টাকায় বিক্রি করবে। রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে বর্তমানে এক কেজি প্যাকেটজাত চিনি ৭৮ টাকা ও খোলা চিনি ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া বড় দানার মসুর ডাল প্রতি কেজি ৭০ থেকে ৭৫ টাকা, মাঝারি দানা ৮০ থেকে ৯০ টাকা এবং সরু দানার মসুর ডাল ১০০ থেকে ১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

গত ৩০ জুলাই ভোজ্যতেল পরিশোধন ও বিপণনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন সয়াবিন তেলের দাম ৪ টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়। সে অনুযায়ী বোতলজাত এক লিটার সয়াবিন তেলের বর্তমান দাম ১৪৯ টাকা, খোলা সয়াবিন তেল ১২৫ টাকা। যদিও বাজারে এখনো নতুন দামের পণ্য আসেনি।
টিসিবি জানিয়েছে, প্রতি ট্রাকে থাকবে ৫০০ থেকে ৮০০ কেজি চিনি, সয়াবিন তেল ৮০০ থেকে ১ হাজার ২০০ লিটার ও মসুর ডাল ৩০০ থেকে ৬০০ কেজি। একজন ক্রেতা সর্বোচ্চ চার কেজি চিনি, দুই কেজি মসুর ডাল ও পাঁচ লিটার তেল কিনতে পারবেন।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ