HEADLINE
ভারত থেকে চিকিৎসা নিয়ে দেশের ফেরার সময় ইমিগ্রেশনে পাসপোর্টযাত্রীর মৃত্যু দেবহাটা প্রেসক্লাবের বার্ষিক সভায় বর্তমান কমিটির মেয়াদ বর্ধিত; সদস্য অন্তর্ভূক্তির লক্ষ্যে উপ-কমিটি ঝাউডাঙ্গায় ৭১ সালের বালিয়াডাঙ্গা যুদ্ধের স্মৃতি চারণে আলোচনা সভা ৪র্থ বার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত কলারোয়ার যুগিখালীর ইউপি সদস্য মফিজুল সাংবাদিক আজিজুল’র মৃত্যুতে সাতক্ষীরা সাংবাদিক সমিতির গভীর শোক সাতক্ষীরায় ধানক্ষেতে ইঁদুর মারা বিদ্যুতের ফাঁদে জড়িয়ে দু’জনের মৃত্যু বাংলাদেশ ভারত এর বন্ধুত্ব বিশ্বে রোল মডেলঃ নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী সাতক্ষীরায় গোপন বৈঠক কালে জামায়াতে ইসলামীর ১০ মহিলা নেতাকর্মী আটক ঐতিহ্যবাহী গুড় পুকুরের মেলা উপলক্ষে মাধবকাটি বলফিল্ড মাঠে উৎসবের আমেজ পরীক্ষার সময় পরিবহন চলা নিয়ে নিশ্চিত নয় জবির পরিবহন পুল
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:১০ পূর্বাহ্ন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার করার প্রতিবাদে ইউপি সদস্যের সংবাদ সম্মেলন

শ্যামনগর প্রতিনিধি / ৬০১
প্রকাশের সময় : বুধবার, ৪ আগস্ট, ২০২১

৪ঠা আগস্ট (বুধবার) সকাল ১১টায় মুন্সিগঞ্জ সুন্দরবন প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন শ‍্যামনগর উপজেলার মুন্সীগঞ্জ ইউনিয়নের ৭নংওয়ার্ডের ইউ পি সদস্য মোঃআনোয়ারুল ইসলাম  ।সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বর্তমান ইউপি সদস্য আনারুল ইসলাম বলেন,এলাকার কিছু সন্ত্রাসী, সঙ্ঘবদ্ধ চোরা হরিণ শিকারী ও বিভিন্ন মামলার আসামী আমার বিরুদ্ধে বাংলা প্রতিদিন নামক একটি অনলাইন সংবাদপত্রে সংবাদ সম্মেলন করেন যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও সাজানো নাটক। শুধু তাই নয় ফেসবুকে বিভিন্ন ভুয়া আইডি খুলে আমার নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে। মীরগাং  গ্রামের সুজা উদ্দিন গাজীর ছেলে একাধিক মামলার আসামি জব্বার গাজী, নজরুল গাজীর ছেলে আত্মসমর্পণকৃত বনদস্যু মাহমুদুল, মৃত মান্দার গাজীর ছেলে বাবলুর রহমান, রাশেদ আলীর ছেলে আনারুল গাজী ও মোঃ আজিজ গাজীর ছেলে ফারুক হোসেন। আমার বিরুদ্ধে এ অপপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ সময় ইউপি সদস্য আনারুল ইসলাম বলেন আনারুল গাজী অস্ত্র মামলার আসামি। ২০০৬সালে বাবলুর রহমান টেংরাখালিতে হরিণের মাংসসহ ধরা খায়,জেল থেকে মুক্তি পেয়ে সে আবার ২০১২ সালে ধনী পরিবারের নিকট থেকে চাঁদা আদায় ও অস্ত্রসহ ডাকাতি করা কালীন সময়ে স্থানীয়রা তাকে আটক করে থানায় সোপর্দ করে, ২০২০ সালে প্রতিবন্ধী রায়হানের নিকট থেকে ১৪ হাজার টাকা আত্মসাৎ করে এবং সর্বশেষ ২০২১ সালে ইয়াবা সহ তার বাড়ি থেকে আটক করে শ্যামনগর থানা পুলিশ। ফারুক হোসেন নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষকে ভয় দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। বর্তমানে সে একটি চেক জালিয়াতি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে পলাতক আছেন। জব্বার গাজীর বন মামলাসহ সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হুমকি-ধামকি বিষয়ে শ্যামনগর থানায় তাকে সহ কয়েকজন আসামি করে এজাহার দাখিল করা আছে বলে জানান ইউ পি সদস্য আনারুল ইসলাম। মাহমুদুল হাছান দীর্ঘদিন সুন্দরবনের ডাকাতি করেছেন বর্তমানে সে আত্মসমর্পণ কৃত জলদস্যুদের তালিকায়। সম্প্রতি হরিণের মাংসসহ আটককৃতদের মধ্যে অন্যতম এবং এজাহারভুক্ত আসামি। সংবাদ সম্মেলনে ইউপি সদস্য আনারুল ইসলাম বলেন আমার বর্তমান ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য এই শ্রেণীটি উঠে পড়ে লেগেছে। বিভিন্ন সময় মানুষের কাছে মিথ্যা বানোয়াট তথ্য নিয়ে হাজির হচ্ছে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য উল্টাপাল্টা লেখালেখি করছে। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমি শ্যামনগর তথা সাতক্ষীরা সকল প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যাতে দুস্কৃতিকারীরা তাদের কুকর্মের সাজা পায়  তাদেরকে অতি দ্রুত সময়ে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক সাজা দেয়া হোক।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ