HEADLINE
পরীক্ষার সময় পরিবহন চলা নিয়ে নিশ্চিত নয় জবির পরিবহন পুল উপকূলে সংকট বাড়ছে, সংকট সমাধানে প্রয়োজন সুপেয় পানি সহ টেকসই বেড়িবাঁধ খলিশাখালিতে প্রতিবাদ সমাবেশ, প্রশাসনের সহযোগীতা চান ভূমিহীনরা একটি ছবি হয়ে উঠেছে আদর্শ ও অনুপ্রেরণা উৎস : তথ্য প্রতিমন্ত্রী খুলনায় ইউপি ভবন থেকে অস্ত্র-গুলিসহ গ্রেফতার ৩ আশাশুনিতে পারস্পরিক শিখন প্রাতিষ্ঠানিকীকরণে অভিজ্ঞতা বিনিময় সফর বল্লীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা কেশবপুরের বিল খুকশিয়ায় মাছের ঘেরের বেড়িতে তরমুজ চাষে কৃষকের সাফল্য সাতক্ষীরা রেঞ্জের অভয়ারণ্য থেকে ৩ জেলেসহ মাছ ধরা ট্রলার আটক অসহায় মানুষের পাশে “আল নূর” পরিবার
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন

সাতক্ষীরার পৌর দীঘিতে রাতে সাঁতার কাটতে গিয়ে নকলনবিশের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি / ৪৯৯
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১

সাতক্ষীরায় শখের বশে সাঁতার কাটতে গিয়ে শহরের পৌর দীঘিতে ডুবে মারা গেছেন নকলনবিশ মহিবুল্লাহ (৪৫)। রোববার রাত ৮টার দিকে শহরের মুনজিতপুরে পৌর দীঘিতে সাঁতার কাটতে গিয়ে নিখোঁজ হন নকলনবিশ মহিবুল্লাহ।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রাত ৮টার দিকে শহরের পৌর দীঘিতে শখের বশে সাঁতার কাটতে নামেন তিনজন। সাঁতারু তিনজন হলেন সাতক্ষীরা সদর রেজিস্ট্রি অফিসের সাব-রেজিস্ট্রার মশিউর রহমান ও তার দুই সহযোগী নকলনবিশ রাসেল ও শ্যাল্যে গ্রামের মহিবুল্লাহ। সাঁতার শেষে দুজন নিরাপদে উঠে এলেও মহিবুল্লাহর কোনো খোঁজ পাচ্ছিলেন না তারা। এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর পৌর দীঘির পাড়ে হাজারো কৌতূহলী মানুষের ভিড় জমে যায়। তাকে উদ্ধারে নেমে পড়ে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশসহ অনেকে। পরে রাত প্রায় ১১টার দিকে মহিবুল্লাহকে খুঁজে পায় ফায়ার সার্ভিস। তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সাতক্ষীরা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার কামরুল ইসলাম জানান, দীঘির পানির গভীরতা ২৫ থেকে ৩০ হাত হতে পারে। সেখানে মহিবুল্লাহকে খুঁজে পেতে খুলনা থেকে ডুবুরি নিয়ে আসা হয়ে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে তারা পানিতে নেমে মহিবুল্লাহকে খুঁজতে শুরু করেন। পরে পাওয়া যায়।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। মৃত নকলনবিশ মহিবুল্লাহ ভাই মো. নজিবুল্লাহ জানিয়েছেন, তার ভাই হার্টের রোগী ছিলেন। তার ডায়াবেটিসও ছিল।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ