HEADLINE
সাতক্ষীরার উৎপাদিত টমেটো যাচ্ছে রাজধানী’সহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় সাতক্ষীরা সীমান্তে অপরাধ দমনে বিজিবি ও বিএসএফ এর পতাকা বৈঠক ঝাউডাঙ্গা হাইস্কুল জামে মসজিদের ওযুখানা নির্মাণ কাজ উদ্বোধন শ্যামনগরে বিদ্যুৎস্পর্শে কৃষকের মৃত্যু কাশ্মিরি ও থাইআপেল কুল চাষে সফল সাতক্ষীরার মিলন ঝাউডাঙ্গা সড়কে বাস উল্টে ১০জন আহত ঝাউডাঙ্গায় জমকালো আয়োজনে শুরু হচ্ছে পৌষ সংক্রান্তি মেলা কালিগঞ্জে শীতার্ত মানুষের পাশে ”বিন্দু” মাদ্রাসা শিক্ষক শামসুজ্জামানের বিরুদ্ধে ফের ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগ স্বামী বিবেকানন্দ দর্শন আমাদের মুক্তির পথ : সাতক্ষীরায় ১৬০তম জন্মবার্ষিকী উৎসবে আলোচকরা
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

সাতক্ষীরার পৌর দীঘিতে রাতে সাঁতার কাটতে গিয়ে নকলনবিশের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি / ৬৮৭
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১

সাতক্ষীরায় শখের বশে সাঁতার কাটতে গিয়ে শহরের পৌর দীঘিতে ডুবে মারা গেছেন নকলনবিশ মহিবুল্লাহ (৪৫)। রোববার রাত ৮টার দিকে শহরের মুনজিতপুরে পৌর দীঘিতে সাঁতার কাটতে গিয়ে নিখোঁজ হন নকলনবিশ মহিবুল্লাহ।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রাত ৮টার দিকে শহরের পৌর দীঘিতে শখের বশে সাঁতার কাটতে নামেন তিনজন। সাঁতারু তিনজন হলেন সাতক্ষীরা সদর রেজিস্ট্রি অফিসের সাব-রেজিস্ট্রার মশিউর রহমান ও তার দুই সহযোগী নকলনবিশ রাসেল ও শ্যাল্যে গ্রামের মহিবুল্লাহ। সাঁতার শেষে দুজন নিরাপদে উঠে এলেও মহিবুল্লাহর কোনো খোঁজ পাচ্ছিলেন না তারা। এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর পৌর দীঘির পাড়ে হাজারো কৌতূহলী মানুষের ভিড় জমে যায়। তাকে উদ্ধারে নেমে পড়ে ফায়ার সার্ভিস, পুলিশসহ অনেকে। পরে রাত প্রায় ১১টার দিকে মহিবুল্লাহকে খুঁজে পায় ফায়ার সার্ভিস। তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সাতক্ষীরা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার কামরুল ইসলাম জানান, দীঘির পানির গভীরতা ২৫ থেকে ৩০ হাত হতে পারে। সেখানে মহিবুল্লাহকে খুঁজে পেতে খুলনা থেকে ডুবুরি নিয়ে আসা হয়ে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে তারা পানিতে নেমে মহিবুল্লাহকে খুঁজতে শুরু করেন। পরে পাওয়া যায়।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। মৃত নকলনবিশ মহিবুল্লাহ ভাই মো. নজিবুল্লাহ জানিয়েছেন, তার ভাই হার্টের রোগী ছিলেন। তার ডায়াবেটিসও ছিল।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ