HEADLINE
চাকরি ও বাসস্থানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নিকট প্রতিবন্ধী তরিকুলের আকুল আবেদন সাতক্ষীরার জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপ ‘ড্রিম সাতক্ষীরা’ প্রথম বারের মতো ফটোকনটেস্টর আয়োজন কেশবপুরে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন শ্যামনগরে নৌ-পুলিশের অভিযানে বালখেট জব্দ, ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা কেশবপুরে ইট ভাটা মালিকের সংবাদ সম্মেলন সারাদেশে নদীভাঙন রোধে পর্যায়ক্রমে স্থায়ী প্রকল্প হচ্ছেঃ এনামুল হক শ্রীউলায় আন্তক্রিড়া প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন বলাডাঙ্গায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে এক বৃদ্ধাকে অপহরণের অভিযোগ ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রেক্ষাপট শ্যামনগরে বিদ্যুৎ স্পর্শে তরুণ স্বেচ্ছাসেবক মেহেদী হাসান’র মৃত্যু
শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

শ্যামনগরে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত এর উদ্যোগে আলোচনা সভা

শ্যামনগর প্রতিনিধি / ১৮১
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২১

বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত শ্যামনগর উপজেলা শাখার উদ্যোগে জশনে জুলুস ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৬ অক্টোবর মুঙ্গলবার সকালে  শ্যামনগর সদরের হায়বাতপুর শেখ পাড়া জামে মসজিদ থেকে জশনে জুলুস একটি শোভাযাত্রা উপজেলা সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রা শেষে শ্যামনগর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবার সকাল দশটায় শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভা আলহাজ্ব মোস্তাক আহমেদ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শ্যামনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম আতাউল হক দোলন। উপস্থিত ছিলেন মাওঃ আসরাফুল ইসলাম আজীজী, মাওঃ আব্দুল আজিজ, মাওঃ বেলাল হোসেন, কারি সোফার হোসেন, আলহাজ্ব সমসের আলী ঢালি, আব্দুর রফিক সহ বিভিন্ন ওলামায়ে কেরাম গন উপস্থিত ছিলেন। বক্তারা বলেন, ‘আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত কোরআন-হাদিসের বাহিরে কোন কথা বলে না। আমাদের নবী আমাদের জন্য রহমত। আল্লাহর নিদের্শ পালন করা আমাদের জন্য ফরজ। এ জন্য আল্লাহর রহমত নবীকে পেয়ে আমরা খুশি উদযাপন করি। আমাদের দেশে বিভিন্ন ব্যাক্তি প্রতিষ্ঠানের জন্মদিন পালন করা হয়। যারা নবীর জন্মদিন পালনে বিবুদ্ধে করে তারা ইসলামের বেইমান। জসনে জুলুশে মানে আনন্দময় শোভাযাত্রা। রাসুলে পাকের শুভাগমন উপলক্ষে করে আল্লাহর নির্দেশে খুশি উদযাপন করি। সকল ইবাদতের শ্রেষ্ঠ ইবাদত নবীর আগমনে খুশি উদযাপন করা।’
আরো বলেন, ‘পৃথিবীতে অন্য কোন ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা মানবতার শিক্ষা দেননি। আমাদের নবীজী মানবতার শিক্ষা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, যারা অন্য ধর্মের মানুষের উপর আঘাত করবে তাদের কেয়ামতের দিন নবীজি সুপারিস করবেন না। সকল ধর্মের মানুষ স্বাধীনভাবে বসবাস করবে, তাদের ধর্মীয় পূজা-আর্চনা করবে। অন্য কোন ধর্মের মানুষের হৃদয়ে আঘত করার অধিকার ইসলাম কাউকে দেয়নাই।’


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ