HEADLINE
পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে ১০ লক্ষ টাকার মালামাল লুট! বাংলাদেশের মেয়েরা এখন আর পিছিয়ে নেই এমপি রুহুল হক ভোমরায় পাসপোর্ট যাত্রীদের তল্লাশির নামে বিজিবির হয়রানি সাতক্ষীরা পৌরমেয়র চিশতিসহ পৌর বিএনপির ১০ নেতা আটক শাশুড়ির কামড়ে জামাইয়ের কান ও জামাইয়ের কামড়ে শাশুড়ির হাতের শিরা বিছিন্ন কালিঞ্চী এ. গফ্ফার মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্দে আদালতে মামলা বৈকারীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ চোরাকারবারি গ্রেপ্তার রাত পোঁহালেই দেবহাটা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্রকান্ডে ফাঁসিয়ে ভারতে পালালেন মূলহোতা নির্বাচন নিয়ে ভাবার কিছু নেই, আমরা গণতান্ত্রিক দল : সাতক্ষীরায় আ.ক.ম মোজাম্মেল হক
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন

রাজগঞ্জে খোলা সয়াবিন তেল ২০০ টাকা কেজি, তাও সংকট

উত্তম চক্রবর্তী, মণিরামপুর / ১৭৯
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২২


যশোরের মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জে আকষ্কিক ভাবে ভোজ্য তেলের সংকট দেখা দিয়েছে এবং দাম ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে আকাশ ছোয়া দামে ভোজ্যতেল কিনতে না পেরে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষেরা। ক্রেতারা বলছেন- এতো দাম হলে কিভাবে সয়াবিন তেল কিনবো?। এদিকে ব্যবসায়ীরা বলছেন- আমরা চাহিদামতো সয়াবিন তেল আনতে পারছি না। যে কারণে বিক্রিও করতে পারছি না। তেলের সাথে সাথে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে কিছু কিছু কাঁচা তরিতরকারি ও মুদি পণ্যের। যা নিম্ন আয়ের মানুষের একেবারে ক্রয়ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল-২০২২) দুপুরে রাজগঞ্জ বাজারের বিভিন্ন দোকানে ঘুরে দেখা ও জানা গেছে- ভোজ্য তেল সয়াবিনের সংকট। অধিকাংশ দোকানে বোতলজাত তেল নেই। আবার খোলা তেল অতিরিক্ত দামে বিক্রি হচ্ছে। রাজগঞ্জ বাজারের দোকানদাররা বোতলজাত তেল প্রতিলিটার ১৭০ থেকে ১৮০ টাকার কমে বিক্রি করছে না। আর খোলা সয়াবিন তেল প্রতিকেজি ২০০ টাকায় বিক্রি করছে। এদিন রাজগঞ্জ বাজারের বটতলা স্কুল মার্কেটের মুদি ব্যবসায়ী সুব্রত দত্ত বলেন- খোলা সয়াবিন তেল ২০০ টাকা প্রতিকেজি। বোতলজাত তেল নেই। এই ২/৩ বোতল তেল আছে। তা ১৭০ টাকার নিচে বেঁচা যাবে না। তিনি আরও বলেন- বিদেশ থেকে সয়াবিন তেল আসছে না, এজন্য তেলের সংকট ও দাম বেশি। সুব্রত দত্ত বলেন- বোতলের গায়ের দামে তেল বিক্রি হবে না। ক্রেতা রিয়াজ হোসেন (৩৫) বলেন- এক কেজি খোলা সয়াবিন তেল কিনলাম ২০০ টাকা দিয়ে। করে সংসার চলবে ?। এদিকে- বৃহস্পতিবার রাজগঞ্জ বাজারে বেগুন প্রতিকেজি ৮০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। সাথে সাথে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে মাছ, অন্যান্য সবজি, ডাল, আটাসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের। এই ঈদের বাজারে অতিরিক্ত দামে পণ্য কিনতে যেয়ে রিতিমত দেয়ালে পীটঢেকে যাচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষের। তাদের বিপদের শেষ নেই। ফলে বাজার মনিটরিং করার দাবী জানিয়েছেন- রাজগঞ্জবাসী।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ