বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:০২ অপরাহ্ন

মুখোমুখি বসলেন দেবহাটার ৫ ইউপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা; তিন পদে বৈধ প্রার্থী ২৬২ জন

দেবহাটা প্রতিনিধি / ৬৩
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২১

দেবহাটা উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দীতায় অংশ নেয়া প্রার্থীদের মনোনয়ন যাচাই বাছাই সম্পন্ন হয়েছে। বৃহষ্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত দেবহাটা উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয় এবং প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ে উৎসব মুখর পরিবেশে প্রত্যেক ইউনিয়নের প্রার্থীদের মনোনয়ন যাচাই বাছাই করা হয়। যাচাই বাছাইয়ে কোন প্রার্থী বাদ না পড়ায় প্রার্থীতা প্রত্যাহারের সময় পর্যন্ত পাঁচটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দীতায় অংশ নেয়া মোট ২৬২ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে। মনোনয়ন যাচাই বাছাইকালে নির্বাচন অফিসার মনোরঞ্জন বিশ্বাসের কার্যালয়ে এক টেবিলে মুখোমুখি বসেন কুলিয়ার আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী আসাদুল ইসলাম, প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি আছাদুল হক ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক বাবু প্রাননাথ দাশ। এর কিছুটা আগেপরে একই টেবিলে মুখোমুখি বসেছিলেন পারুলিয়ার আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী সাইফুল ইসলাম, প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক বাবু এবং অপর প্রার্থী গোলাম ফারুক বাবুর স্ত্রী আরিফা পারভীন, দেবহাটা সদরের আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী আলী মোর্তজা মো. আনোয়ারুল হক, প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আবু বকর গাজী, সাবেক চেয়ারম্যান আ.লীগ নেতা নজরুল ইসলাম। এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা ও সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মতিন বকুল সহ আরোও দুজন স্বতন্ত্র প্রার্থীও বসেছিলেন ওই টেবিলে।
পাশাপাশি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শাহজাহানের কার্যালয়ে মনোনয়ন যাচাই বাছাই হয়েছে সখিপুর ও নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বর পদের প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীদের। সেসময় সেখানেও একসাথে এক টেবিলে বসেছিলেন সখিপুরের আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ ফারুক হোসেন রতন ও তার সাথে প্রতিদ্বন্দীতায় অংশ নেয়া জেলা কাঁকড়া ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, আব্দুল আজিজ এবং আবু হাসান সাঈদ। এছাড়া নওয়াপাড়া ইউপির আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী আলমগীর হোসেন সাহেব আলী, তার প্রতিদ্বন্দী বিএনপি নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রেজাউল করিম এবং অপর আরেক প্রার্থীও ওই দপ্তরে এক টেবিলে বসে নিজেদের মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাইয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারের মুখোমুখি হয়েছিলেন।
দেবহাটা উপজেলা নির্বাচন অফিসার মনোরঞ্জন বিশ্বাস বলেন, উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের সকল প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এতে কোন প্রার্থী বাদ না পড়ায় বর্তমানে কুলিয়া ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ইউপি সদস্য পদে ৩৩ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৩ জন প্রার্থী, পারুলিয়া ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ইউপি সদস্য পদে ৪০ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী, সখিপুর ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, ইউপি সদস্য পদে ৪০ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী, নওয়পাড়া ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ইউপি সদস্য পদে ৪২ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৩ জন প্রার্থী, দেবহাটা সদর ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৬জন ইউপি সদস্য পদে ২৯ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই শেষে বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে। ১১ নভেম্বর পর্যন্ত এসকল প্রার্থীদের যে কেউ চাইলে তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করতে পারবেন। ১২ নভেম্বর প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রতিক বরাদ্দ দেয়া হবে বলেও জানান নির্বাচন অফিসার মনোরঞ্জন বিশ্বাস।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ