বেনাপোলে সীমিত আকারে পালিত হলো দু’বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

বেনাপোলে সীমিত আকারে পালিত হলো দু’বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

টিটু মিলন, বেনাপোল প্রতিনিধিঃ মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে এবার দু’দেশের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের যৌথ অনুষ্ঠান পালিত হয়েছে সীমিত আকারে। প্রতিবছর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসটি বেনাপোল চেকপোস্টের নো-ম্যান্সল্যান্ডে পালিত হয় যৌথ ভাবে।

হাজার হাজার বাংলাভাষা প্রেমী মানুষ প্রাণের আবেগে ছুটে আসে মাতৃভাষা দিবস উদযাপানে। ছোট আকারে এবার নো-ম্যান্সল্যান্ডে নির্মান করা হয়েছে অস্থায়ী শহীদবেদি। দু’দেশের রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতি নেতৃবৃন্দ অস্থায়ী শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এবার বাংলাদেশ অংশে কোন অনুষ্ঠান হচেছ না। বাংলাদেশ থেকে ১০০ জন প্রতিনিধি অংশ গ্রহন করেন ভারতীয় একুশের অনুষ্ঠানে। বেলা সাড়ে ১০ টায় বাংলাদেশ ভুখন্ডের বেনাপোল চেকপোষ্ট এলাকায় স্থানীয় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী স্বপন কুমার ভট্রচার্য ভারতের প্রবেশের আগে একুশ উদযাপন উপলক্ষে স্বাগত ভাষন দেন। তিনি বলেন স্বল্প পরিসরে হলেও আমরা দুই দেশের ভাষাপ্রেমীরা আজ একত্রে মিলে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পারছি। তাই সকলে স্বাস্থ্য বিধি মেনে এবং যাদের ভারতে প্রবেশের অনুমতি আছে শুধু মাত্র তারা প্রবেশ করবেন। এরপর বেলা ১১ টার সময় মন্ত্রী রাজনৈতিক নেতা ও স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মী সহ সকলে পেট্রাপোল প্রবেশ করে। দু-বাংলার ২১ ফেব্রুয়ারি মাতৃভাষা দিবস অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য-এমপি,৮৫ যশোর-১ (শার্শা) আসনের সাংসদ আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দিন, বেনাপোল কাস্টম্স কমিশনার আজিজুর রহমান, যশোর পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়র্দ্দার, যশোর-৪৯ বিজিবি’র অধিনায় লে. কর্ণেল সেলিম রেজা, শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ২১ উদযাপন কমিটির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, যুগ্ম-সম্পাদক ও যশোর জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল, দৈনিক স্পন্দন পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক মাহবুব আলম লাবলু, বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ এনামুল হক মুকুল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ নাসির উদ্দিন, সহ-সভাপতি আলীকদর সাগরসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। 
ভারতের পক্ষে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বনগাঁ পৌরসভার প্রসাশক শ্রী শংকর আঢ্য, উত্তর ২৪ পরগঁনা জেলা পরিষদের প্রাক্তন বিধায়ক ও মেন্টর গোপাল শেঠ, উত্তর ২৪ পরগঁনা জেলা পরিষদের সহ-সভাপতি শ্রীকৃষ্ণ গোপাল ব্যানার্জী, বনগাঁ লোকসভার প্রাক্তন সংসদ শ্রীমত্তা মমতা ঠাকুর, বনগাঁ দক্ষিণ বিধায়ক শ্রী সুরঞ্জিত বিশ^াষ, গাইঘাটা বিধায়ক শ্রী পুলেন বিহারি রায়, বনগাঁ পৌরসভা ও প্রাক্তন পৌরসভা এবং প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য শ্রীমত্তা কৃষ্ণা রায়, গাইঘাটা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ্রী গোবিন্দ দাস, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শ্রী প্রদীপ বিশ^াস, গাইঘাটা পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ শ্রী ধ্যানেশ গুহ, বনগাঁ পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ শ্রী সৌমেন দত্ত, ছয়ঘরিয়া প্রাক্তন পরিষদের প্রধাণ প্রসেনজিৎ ঘোষ, দমদম পৌরসভা প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য শ্রীমতি রিংকু দে দত্ত, আকাইপুর প্র: প: প্রধান শ্রী সুভাস সাহা। #

Print Friendly, PDF & Email
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন