HEADLINE
শ্যামনগরে ইটভাটায় জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে কাঠ সাতক্ষীরায় ঔষধ ফার্মেসী থেকে ৯ হাজার পিচ নেশাদ্রব্য ট্যাবলেটসহ গ্রেপ্তার ২ জমকালো আয়োজনে ঝাউডাঙ্গায় ৮ দলীয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন যশোরের কেশবপুরে কোটি কোটি টাকার সোলার স্ট্রিট লাইট নষ্ট! ভূয়া এতিম দেখিয়ে বছরের পর বছর সরকারি অর্থ আত্মসাৎ! ঝাউডাঙ্গায় মেয়াদবিহীন ও লাইসেন্স ছাড়া চলছে বেকারী পণ্য বাজারজাতকরণ ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদানে ফিরে আনা জরুরী ঝাউডাঙ্গায় গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা নলতায় ডা: ছবুরের বাড়ীতে দুর্ধর্ষ চুরি, টাকাসহ স্বর্ণালংকার লুট  স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নারী ও যুববান্ধব বাজেটের অন্তরায়
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৩৫ পূর্বাহ্ন

বুধহাটায় বিক্ষোভ ও ঝাড়ু মিছিল

আশাশুনি ব্যুরো / ১৬৫
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০২২

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা বাহাদুরপুর ভুবন মোহন কলেজিয়েট স্কুলের দূর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষক দাউদ হোসেনকে অপসারণ ও নবনির্বাচিত অভিভাবক সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে সভাপতি নির্বাচনের দাবিতে বিক্ষোভ ও ঝাড়ু–মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল বিকাল ৪.৩০ টায় স্কুল চত্বর থেকে অভিভাবক ও স্থানীয়দের অংশগ্রহণে মিছিল বের করা হয়।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানাগেছে, বুধহাটা বাহাদুরপুর ভূবোন মোহন কলেজিয়েট স্কুলের দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির আয়োজনে শতশত নারী-পুরুষের অংশ গ্রহনে ঝাড়– মিছিলটি বাসস্ট্যান্ড ও বিভিন্ন সড়ক ঘুরে স্কুল মাঠে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে অভিভাবক রফিকুজ্জামান বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, গত ১৫ অক্টোবর প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডি নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাাকিম সমর্থিত ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক মাহবুবুল হক ডাবলু সমর্থিত দু’টি প্যানেল নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করে এবং মাহবুবুল হক ডাবলুর প্যানেল নিরঙ্কুশ জয়লাভ করে। কিন্তু নির্বাচনের পূর্বে অধ্যাপক ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক এমপিকে ভুল বুঝিয়ে সুকৌশলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে সভাপতি পদে অধিষ্ঠিত হতে ডিও লেটার নিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে নবনির্বাচিত অভিভাবক সদস্য, অভিভাবক ও স্থানীয়দের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করতে দেখা গেছে। তার সময়ের দুর্নীতি ঢাকতে ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিতে তাকে সহযোগিতা করছেন দাতা সদস্য ইসমাইল হোসেন। দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতিতে ভরে গেছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রধান শিক্ষককে বয়স উত্তীর্ণের পরও মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন না নিয়ে অবৈধ নিয়োগে বহাল আছেন প্রধান শিক্ষক। স্কুলে ঘর বরাদ্দ, নিয়োগ বানিজ্যসহ রয়েছে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতি। মিছিলে প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতি ও অপসারণের দাবিতে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে দেখা যায়।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ