শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন

বিনা টাকায় মসজিদের দেয়ালে আয়াত লেখেন অনীল কুমার চৌহান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক / ৯
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১

কে কোন ধর্মের অনুসারী তা দিয়ে মানুষকে বিচার করা যায় না। এক ধর্মের অনুসারী হয়ে অন্য ধর্মের মানুষের জন্য কিছু করার প্রবণতা অনেক মানুষের মধ্যেই বিদ্যমান। ভারতের হায়দরাবাদের অনীল কুমার চৌহান কাজেকর্মে সেটিই প্রমাণ করেছেন।

হিন্দু ধর্মাবলম্বী হয়েও ৩০ বছরে কমপক্ষে ২০০ মসজিদের মেহরাব ও দেয়ালে পবিত্র কোরআনের আয়াত ও হাদিস লিখেছেন বিনা পারিশ্রমিকে। মসজিদ কর্তৃপক্ষ পারিশ্রমিক নেয়ার জন্য জোরাজুরি করলেও চৌহান তা ফিরিয়ে দেন।

এ বিষয়ে অনীল কুমার চৌহান বলেন, যেকোনো ধর্মের উপাসনালয়ে সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ করতে আমার ভালো লাগে। ভিন্ন এক প্রশান্তি অনুভব করি। এ জন্য এসব জায়গায় কাজ করে পারিশ্রমিক নেই না। আমার কাছে মসজিদ, মন্দির এবং গির্জার মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। মসজিদে ক্যালিগ্রাফির কাজ করতে গিয়ে মাঝেমধ্যে বিরূপ পরিস্থিতিতেও পড়তে হয়েছে তাকে।

অনীল কুমার বলেন, একদিন হায়দ্রাবাদের এক মসজিদে কাজ করতে গেলে মসজিদ কর্তৃপক্ষের একজন আমি হিন্দু হওয়ায় মসজিদে প্রবেশ করতে দিচ্ছিলো না। আমি কাজ করবো না– এমনটা না বলে হায়দ্রাবাদের প্রসিদ্ধ মাদ্রাসা জামিয়া নিজামিয়ায় চলে যাই। তারা আমাকে অজু করে পবিত্রতার সঙ্গে মসজিদে প্রবেশের অনুমতি দেয়ার ফতোয়া দেন। এরপরে ওই মসজিদে গিয়ে কাজ করে দেই।

হায়দ্রাবাদের প্রাচীন অঞ্চল চার মিনারের অদূরেই অনীল কুমারের ছোট একটি দোকান আছে। যেখানে তিনি আরবি, উর্দু, হিন্দি, তেলেগু এবং ইংরেজি ভাষায় সাইনবোর্ড লেখার কাজ করেন। তিনি অনলাইনের মাধ্যমেও হস্তলিপির কাজ পান। যার থেকে মাসে কমপক্ষে ৩৫০ ডলার উপার্জন হয়।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ