HEADLINE
শ্যামনগরে ইটভাটায় জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে কাঠ সাতক্ষীরায় ঔষধ ফার্মেসী থেকে ৯ হাজার পিচ নেশাদ্রব্য ট্যাবলেটসহ গ্রেপ্তার ২ জমকালো আয়োজনে ঝাউডাঙ্গায় ৮ দলীয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন যশোরের কেশবপুরে কোটি কোটি টাকার সোলার স্ট্রিট লাইট নষ্ট! ভূয়া এতিম দেখিয়ে বছরের পর বছর সরকারি অর্থ আত্মসাৎ! ঝাউডাঙ্গায় মেয়াদবিহীন ও লাইসেন্স ছাড়া চলছে বেকারী পণ্য বাজারজাতকরণ ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদানে ফিরে আনা জরুরী ঝাউডাঙ্গায় গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা নলতায় ডা: ছবুরের বাড়ীতে দুর্ধর্ষ চুরি, টাকাসহ স্বর্ণালংকার লুট  স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নারী ও যুববান্ধব বাজেটের অন্তরায়
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন

ফিংড়ীতে প্রতিপক্ষের হামলায় মা ও শিশু সন্তান আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৫১
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২২

জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় গৃহবধু ও তার শিশু সন্তান আহত হয়েছে। সাতক্ষীরা সদরের ফিংড়িতে শুক্রবার ১৪ অক্টোবর জুম্মার নামাজের সময় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আহতের স্বামী মুনায়েম জানান, বেশ কয়েক বছর ধরেই জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছে সাতক্ষীরা সদরের ফিংড়ি ইউনিয়নের বাসিন্দা হামিদের সাথে একই গ্রামের মৃত. ভূবন সরকারের ছেলে কলেজ শিক্ষক শিবপদ সরকার ও তার ভাইদের। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় শালিষ হলেও সিদ্ধান্ত মেনে না নেওয়ায় আদালতে মামলা হয়। নিজেদের ভোগদখলীয় জমিতে টয়লেট তৈরি করছিলো হামিদের ছেলে মুনায়েম হোসেন(২৪)। নির্মান কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে ছিল। শুক্রবার জুম্মার নামাজের সময় শিবপদ সরকার, নিরাপদ সরকার, হরিপদ সরকারসহ তাদের ভাইপোরা মিলে মুনায়েমের নির্মানাধীন পাকা টয়লেটে ভাংচুর চালায়। জুম্মার নামাজ চলাকালীন সময়ে হামলা হওয়ায় সে সময় বাড়ির পুরুষরা নামাজরত ছিলেন। ভাংচুর ঠেকাতে মুনায়েমের স্ত্রী ওই স্থানে গেলে তার ওপর হামলে পরে শিবপদসহ তার ভাই ও ভাইপোরা। মুনায়েমের স্ত্রী মোছা আখি ইসলামের দুই মাস পূর্বে সিজার করা হয়। সেই কাটা স্থানে লাথি মারে শিবপদ। যন্ত্রনায় চিৎকার করে মাটিতে পরে গেলে এসময় তাকে উপর্যুপরি লাথি, কিল ঘুষি মারতে থাকে তারা। এ সময় মুনায়েমের দুই মাস বয়সী শিশু তার স্ত্রীর কোলে ছিল। শিশুটির শরীরের কয়েকটি আঘাত লাগে। আখির চিৎকারে স্থানীয় প্রতিবেশি মহিলারা ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় শিবপদ সহ বাকিরা চলে যায়। আখি ইসলাম মূমুর্ষ অবস্থায় বর্তমানে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তার হাতে মুখে ঘুষির আঘাতে ফোলা দেখতে পাওয়া যায়। অন্যদিকে মামলা থেকে বাঁচতে শিবপদও আহতের নাটক করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। প্রতিবেদকের সামনেই সে মোটরসাইকেল চালিয়ে এসে হাসপাতালে ভর্তি হয়। তার বক্তব্য নিতে গিয়ে তার আঘাতের স্থান দেখতে চাইলে তিনি দেখাতে পারেননি। তবে তিনি জানান, তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি তাদেরই শরীকের এক ব্যক্তি ৪৮ শতক বেশি জমি বিক্রি করে ভারতে চলে যান। এ নিয়ে বার বার শালিষ মামলা হয়েছে। তবে তিনি হমলার ঘটনা নিয়ে বলেন, তিনটার দিকে আমি গ্রামের বাড়ি গিয়ে মুনায়েমের কাছে আমাদের জমিতে টয়লেট নির্মান করার কথা জিজ্ঞাসা করলে তারা আমাকে ও আমার ভাইপোকে মারধোর করে। তবে তিনি সংবাদটি প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করেন। এ ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ