শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৩১ পূর্বাহ্ন

পাটকেলঘাটায় পরকিয়া সন্দেহে স্বামীর গোপানাঙ্গ কাটল স্ত্রী

খলিলুর রহমান, সাতক্ষীরা / ৩১০
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২

অন্য নারীর সাথে পরকিয়া সম্পর্কের সন্দেহের জের ধরে স্বামীর গোপানাঙ্গ কাটার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর স্ত্রী শারমিন বেগম(২৩) আটক করেছে পুলিশ। স্বামী মেহেদি হাসান(২৮) সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

মেহেদি হাসান পাটকেলঘাটা থানার ভারশা গ্রামের নওয়াব আলী শেখের ছেলে। মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে সাতক্ষীরা জেলার পাটকেলঘাটা থানার ভারশা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, ৭বছর আগে ভারশা গ্রামের নওয়াব আলী শেখের ছেলে মেহেদির সাথে বকশিয়া গ্রামের সাজ্জাদ মোড়ল শারমিনের প্রেমের সম্পর্কের সুত্র ধরে বিয়ে হয়। বর্তমানে তাদের ঘরে ৪ বছর বয়সী পুত্র সন্তান আছে। বিয়ের পর থেকে তাদের সংসারে প্রায় অশান্তি হত। গত পনের দিন ধরে মেহদি স্ত্রীকে দ্বিতীয় বিয়ের জন্য হুমকি দিলে দুজন পৃথক ভাবে বসবাস করছিল। গত কাল সন্ধ্যায় স্ত্রী তাকে কৌশালে একসাথে ঘুমানোর জন্য বলে। অতঃপর রাতে ঘুমিয়ে পড়লে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্বামীর গোপানাঙ্গ কোটে নেয় শারমিন।

পাটকেলঘাটা থানার ওসি (তদন্ত) বাবলুর রহমান খান জানান, ঘটনার পর শারমিনকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ছেলের পিতা নওয়াব আলী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ