HEADLINE
পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে ১০ লক্ষ টাকার মালামাল লুট! বাংলাদেশের মেয়েরা এখন আর পিছিয়ে নেই এমপি রুহুল হক ভোমরায় পাসপোর্ট যাত্রীদের তল্লাশির নামে বিজিবির হয়রানি সাতক্ষীরা পৌরমেয়র চিশতিসহ পৌর বিএনপির ১০ নেতা আটক শাশুড়ির কামড়ে জামাইয়ের কান ও জামাইয়ের কামড়ে শাশুড়ির হাতের শিরা বিছিন্ন কালিঞ্চী এ. গফ্ফার মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্দে আদালতে মামলা বৈকারীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ চোরাকারবারি গ্রেপ্তার রাত পোঁহালেই দেবহাটা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্রকান্ডে ফাঁসিয়ে ভারতে পালালেন মূলহোতা নির্বাচন নিয়ে ভাবার কিছু নেই, আমরা গণতান্ত্রিক দল : সাতক্ষীরায় আ.ক.ম মোজাম্মেল হক
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন

নলতায় আহ্ছানিয়া মিশন চক্ষু ও জেনারেল হাসপাতালে ফ্যাকো মেশিনে লেন্স সংযোজন শুরু

নলতা সংবাদদাতা / ১৯৩
প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলাধীন নলতা শরীফে পাক রওজা শরীফের সর্বজন শ্রদ্ধেয় প্রয়াত খাদেম মরহুম আলহাজ্জ মৌ. আনছার উদ্দিন আহমদ’র উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ও নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত আহ্ছানিয়া মিশন চক্ষু ও জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নতুন সংযোগ হিসেবে মিশনের কার্যনির্বাহী সদস্য আলহাজ্জ মো. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু’র বিশেষ সহযোগিতায় ১৩ ফেব্রুয়ারি রবিবার থেকে অত্যাধুনিক ফ্যাকো মেশিনের সাহায্যে মনোরম পরিবেশে চোখের ছানি পড়া রোগীদের স্বল্প খরচে বেলা দেড়টা থেকে অপারেশন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। 
কালিগঞ্জ উপজেলার মকুন্দ মধুসূদনপুর (এম এম পুর) গ্রামের আব্দুল আজিজ এর স্ত্রী জোহরা খাতুন (৫৫) এর বাম চোখে লেন্স সংযোজনের মাধ্যমে নতুন এ কার্যক্রমের যাত্রা শুরু হয়। 
ঢাকা লায়ন্স চক্ষু ইন্সটিটিউট এন্ড  হাসপাতালের কনসালটেন্ট ও আবাসিক সার্জন এবং এলাকার ইন্দ্রনগর গ্রামের কৃতি সন্তান ডাঃ আবুল হোসেন এর নেতৃত্বে প্রায় ৪০ জন চক্ষু রোগীর মধ্যে জোহরা খাতুন, পারুলিয়া চারা বটতলা এলাকার জাহান আলীর স্ত্রী ফরিদা খাতুন ( মিশন সম্পাদকের শাশুড়ী) সহ রেজিস্ট্রেশনকৃত ৬ জন ফ্যাকো রোগী এবং অবশিষ্ট নন-ফ্যাকো বা অন্যান্য চক্ষু রোগীদের ২ দিন ব্যাপী অপারেশন কার্যক্রমের ১ম দিন অপারেশন শুরুকালে আরো উপস্থিত ছিলেন নলতার অপর কৃতি সন্তান ও চক্ষু বিষয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ মো. ফজলুর রহমান, আহ্ছানিয়া মিশন চক্ষু ও জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পরিচালক আলহাজ্জ ডা: আকছেদুর রহমান, অত্র হাসপাতালের চক্ষু চিকিৎসক আলহাজ্জ মো. হাবিবুর রহমান ও ডা: তন্ময় কুমার ঢালী, নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ মো. এনামুল হক খোকন, যুগ্ম-সম্পাদক ডা: মো. নজরুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী সদস্য ও ফ্যাকো মেশিনে লেন্স সংযোজন কার্যক্রম চালুর নেপথ্যের কারিগর  আলহাজ্জ মো. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, নির্বাহী সদস্য আলহাজ্জ আবুল ফজল শিক্ষক, মো. খায়রুল হাসান, মিশনের আজীবন সদস্য ও সংবাদকর্মী প্রভাষক মো. মনিরুজ্জামান (মহসিন), হাসপাতালে ব্যবস্থাপক মো.শামীম হোসেন সহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। 
অধ্যাপক ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক এমপি’র সভাপতি হিসেবে পরিচালিত নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ফ্যাকো মেশিনে চক্ষু রোগীদের লেন্স সংযোজন কার্যক্রম শুরুর পূর্বে সকালে অত্র চক্ষু হাসপাতালে এক দোয়ার অনুষ্ঠান হয়। দোয়ার অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন নলতা শরীফ শাহী জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্জ মুফতি মাওলানা মো. আবু সাঈদ রংপুরী। 
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন চক্ষু সার্জন ডা: মো. আবুল হোসেন, মিশনের সহ-সভাপতি আলহাজ্জ মো. সাইদুর রহমান শিক্ষক, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ এনামুল হক, পাক রওজা শরীফের খাদেম আলহাজ্জ মৌ. আব্দুর রাজ্জাক, নির্বাহী সদস্য আলহাজ্জ মো. ইউনুছ, নির্বাহী সদস্য আলহাজ্জ মো.রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, আলহাজ্জ রবিউল হক, আলহাজ্জ আবুল ফজল, আলহাজ্জ একরামুল রেজা সহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারী, আলহাজ্জ হাফেজ শামছুল হুদা,আলহাজ্জ রেজাউল ইসলাম সহ বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ।
উল্লেখ্য, নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের পরিচালনায় মিশন প্রাঙ্গণে ১৯৯১ সাল থেকে সামান্য ফিসের মাধ্যমে চক্ষু রোগীদের চিকিৎসা কার্যক্রম চলমান থাকলেও ২০১৭ সালের ১জানুয়ারি থেকে নলতা পাক রওজা শরীফের প্রয়াত খাদেম আলহাজ্জ মৌ. আনছার উদ্দিন আহমদ’র বিশেষ উদ্যোগে অত্র আহ্ছানিয়া মিশন চক্ষু ও জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারটি নলতা অডিটোরিয়াম এর দক্ষিণ পার্শ্বে সু-বিশাল জায়গায় অবস্থিত হওয়ায় হাসপাতালটিতে চক্ষু,গাইনী,দন্ত,মেডিসিন সহ নানা বিষয়ে চিকিৎসা কার্যক্রম চালু ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা অব্যাহত গতিতে এগিয়ে চলেছে। 
প্রতিদিন স্থানীয় সহ বিভিন্ন এলাকা হতে আগত নানান ধরণের অসংখ্য রোগীর স্বল্প খরচে মানসম্মত চিকিৎসার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হাসপাতালটির পরিচ্ছন্ন ও নান্দনিক পরিবেশ চোখে পড়ার মত।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ