HEADLINE
ছওয়াব ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ”আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে যাকাতের ভূমিকা” শীর্ষক সেমিনার ঝাউডাঙ্গা ভূমি অফিসের তহসিলদারের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ দাঁতভাঙা বিলে মৎস্য ঘের থেকে অজ্ঞাত নারীর লা’শ উদ্ধার মুখে মাস্ক পরে দেবহাটায় একরাতে ৪টি দোকানে চুরি ভাগ্য খুলতে পারে খুলনা জেলা ছাত্রলীগের! স্কুল ম্যানেজিং কমিটি গঠনে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ সাতক্ষীরায় বেসরকারি ক্লিনিকে অভিযানে ভুয়া চিকিৎসকসহ দু’জনের কারাদণ্ড সাতক্ষীরা হার্ট ফাউন্ডেশনে সেবিকার কর্তব্য অবহেলায় বৃদ্ধার মৃ’ত্যুর অভিযোগ ডুমুরিয়ায় দুই শিশু সন্তানকে বালিশ চা’পা দিয়ে হ’ত্যার পর মায়ের আত্মহ’ত্যা ভোমরা প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন : সভাপতি জাহাঙ্গীর, জিয়া সাধারণ সম্পাদক
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪৫ অপরাহ্ন

নতুন শুল্ক আরোপে সাতক্ষীরায় বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

মোমিনুর রহমান সবুজ / ৪৪৩
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২১ আগস্ট, ২০২৩

সাতক্ষীরা শহরের সুলতানপুর বড়বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬৫ থেকে ৭০ টাকায়। খুচরা ব্যবসায়ীরা ভোমরা স্থলবন্দর থেকে পাইকারি পেঁয়াজ কিনছেন ৫৮ থেকে থেকে ৬০ টাকায় । দুই দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম ১০ থেকে ১৫ টাকা বেড়ে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ ক্রেতারা। তবে তথ্যানুসন্ধ্যানে জানা গেছে,শতকরা ৪০ ভাগ শুল্ক আরোপের পেঁয়াজ আমদানির আগেই বাড়তি লাভের জন্য দাম বাড়িয়েছেন বিক্রেতারা। সুলতানপুর বড়বাজারের ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম জানান, তারা আড়ৎ থেকে পেঁয়াজ কিনছেন ৫৮ থেকে থেকে ৬০ টাকায়। পরিবহন ভাড়া ও শ্রমিক খরচ যোগ করে তাদের পেঁয়াজ বিক্রি করতে হচ্ছে ৬৫ থেকে ৭০ টাকায়। প্রশাসন আসল জায়গা ভোমরা বন্দরে মজুত বিরোধী অভিযান না চালিয়ে এ বাজারে তাদের উপর বারবার চড়াও হয়। তবে পেঁয়াজের দাম বাড়ানোয় খুশী নন ক্রেতারা।পেঁয়াজ কিনতে আসা ক্রেতা ষাড়াগাছির আব্দুল ওয়াদুদ জানান, শুরু বড় বাজার নয়, ধুলিহর, টাউনবাজার, মিলবাজারসহ সব বাজারেই পেঁয়াজের দাম চড়া। তাই রিপোর্ট লিখে আর কি হবে? মাত্র দুদিনের ব্যবধানে আজ পেঁয়াজ কিনছি ৭৫ টাকা কেজি। অথচ মাত্র দুদিন আগে পেঁয়াজ কিনেছি ৬০ টাকা কেজিতে। আব্দুল ওয়াদুদ আক্ষেপ করে বলেন, প্রশাসনের নাকের ডগায় পেঁয়াজসহ মশল্লাপাতির দামে অরাজকতা চলছে। প্রশাসনের অভিযান কখনো তার নজরে আসেনি। কাটিয়া আনন্দপাড়ার রহিমা খাতুন বলেন, একটি কলেজে পিওনের চাকুরি করি। কাঁচা মরিচ থেকে পেঁয়াজসহ সব জিনিসের দাম বেড়েছে। দাম বাড়ায় ঝালের তরকারির বদলে শুকতো খাচ্ছি। এবার পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় সপ্তাহে এক কেজির পরিবর্তে ৫০০ গ্রামে কাজ মেটাতে হবে। ভোমরা স্থলবন্দরের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী খোরশেদ আলম জানান, শতকরা ৪০ টাকা শুল্ক আরোপের আগের পেঁয়াজ ভোমরা স্থলবন্দরে এসেছে সর্বোচ্চ ৪৬ টাকায়। ভোমরা থেকে বিক্রি হয়েছে ৫০ টাকায়। তাহলে খুচরা বাজারে পেঁয়াজের দাম ৬৫ টাকা কেন হবে, প্রশ্ন রাখেন এ ব্যবসায়ী। ভোমরা স্থলবন্দর সি এন্ড এফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ খাঁন জানান, শুল্ক বেড়েছে রবিবার থেকে। এর আগেই ২৩০ ডলারের পেঁয়াজ আমদানি করতে হয়েছে ২৪৫ থেকে ২৫৫ মার্কিন ডলারে। এছাড়া অন্যান্য খরচও বেড়েছে অনেকগুনে। সুতরাং ৫৫ টাকার নিচে পেঁয়াজ বিক্রির সুযোগ ছিল না। তিনি আরও জানান, ভারতীয় অর্থমন্ত্রণালয়ের রাজস্ব শাখা ১৯ আগষ্ট পেঁয়াজের ওপর নতুন শুল্ক আরোপ করে। এতে শুল্ক উন্নীত হয়েছে শতকরা ৪০ টাকায়। ভারত সরকারের উপসচিব অমৃতা তিতাস স্বাক্ষরিত এ পত্রে জানানো হয় পেঁয়াজ রপ্তানির ক্ষেত্রে মুল্যের ওপর শতকরা ৪০ ভাগ শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। এখন যেটা হলো, প্রতি কেজি পেঁয়াজ আমদানি করতে খরচ হবে ৬৬ থেকে ৬৭ টাকা। সুতরাং ভোমরা স্থলবন্দরেই পেঁয়াজ বেচতে হবে কমপক্ষে ৭০ টাকা। সুতরাং খুচরা পর্যায়ে পেঁয়াজ ৭৫ থেকে ৮০ টাকা ছাড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান তিনি। ভোমরা শুল্ক স্টেশনের তথ্য কর্মকর্তা শান্ত হাওলাদার জানান, শতকরা ৪০ ভাগ শুল্ক আরোপের পেঁয়াজ রবিবার বিকেল থেকে ভোমরায় আসা শুরু হয়েছে। সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ৫টি ট্রাক এসেছে। তার আগ পর্যন্ত ১৬ ট্রাক পেঁয়াজ আগের শুল্কে এসেছিল। জেলায় পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের সহকারী পরিচালক নাজমুল হোসেন জানান, বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা হয়ত আজই চলে আসবে। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী তারা বাজার ব্যবস্থা তদারকি করবেন। কোন প্রকার অনিয়ম হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ