তালা-পাটকেলঘাটা সার্কেল এসপি হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে লকডাউনে অসম্মানিত সাংবাদিকরা

তালা-পাটকেলঘাটা সার্কেল এসপি হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে লকডাউনে অসম্মানিত সাংবাদিকরা

বিশেষ প্রতিনিধি :  লকডাউনে নিজের ক্ষমতা জাহির করছেন তালা-পাটকেলঘাটা সার্কেল এসপি হুমায়ুন কবির। তার হাত থেকে রেহায় পাচ্ছেনা গনমাধ্যম কর্মীরাও।  তিনি সাংবাদিকদের সাথে চরম অসদাচারন করতে দ্বিধা করছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগিরা জানিয়েছেন শনিবার দুপুর ৩টার দিকে পাটকেলঘাটার স্থানতরিত শবজির বাজার মফিজুল ইসলামের মুরগীর দোকান থেকে মুরগী ক্রয় করছিলেন বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সাতক্ষীরা প্রতিনিধি মনিরুল ইসলাম মনি। এসময় তিনি ছবি তোলার চেষ্টা করলে সাংবাদিক মনির হাতের ফোনটি ছিনিয়ে নেয়া হয়। অন্যদিকে পেশাগত কাজে পাটকেলঘাটায় থাকা কালিন সাপ্তাহিক জনতার মিছিল পত্রিকার বার্তা সম্পাদক ইব্রাহিমের ব্যবহারিত মোটরসাইকেলটির দুইটি চাকা ভোমর দিয়ে ছিদ্র করে পাংচার করে দেওয়া হয়। শুধু ছিদ্রের করেই খান্ত হননি তার  ব্যবহৃত মোটরসাইকেল টি জব্দ করে এবং তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে লাথি মারার জন্য উদ্যত হয়। এসময় তিনি বলেন “আমি কে জানেন” এমন দম্ভক্তি ছুড়ে দিয়ে নিজেকে জাহির করার চেষ্টা করেন। ঘটনার ১৫ মিনিট পূর্বে এ্যসিল্যান্ড অফিসের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা পাটকেলঘাটা প্রেসক্লাবেব সভাপতি শেখ জহুরুল হকও দৈনিক কালের চিত্র প্রত্রিকার সাংবাদিক শাহিন বিশ্বাসের পরিচয় পেয়েওতাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল লোহার ভোমর ফুঁটিয়ে মটরসাইকেলটি অকেজো করে দেওয়া হয়। একজন দায়িত্বশীল সহকারী পুলিশ কর্তার এমন আচরনে সাংবাদিক সমাজ হতভম্ব।

Print Friendly, PDF & Email
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন