রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন

কেশবপুরে ওএমএসের চাল-আটা কিনতে মানুষের ভীড়

উৎপল দে, কেশবপুর / ১৪৮
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১

ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা করে কেশবপুরে খাদ্য অধিদপ্তর পরিচালিত ওএমএস এর চাল ও আটা বিক্রয় কেন্দ্রগুলোতে মানুষের ভীড় ছিলো চোখে পড়ার মতন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বৃষ্টি উপেক্ষা করে শহরের ৪টি কেন্দ্রে ছিল মানুষের ভীড়। এ সময় বৃষ্টির মধ্যে কেশবপুর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা এম এম আরাফাত হোসেন হতদরিদ্রের ন্যায্যমূল্যে খাদ্য-দ্রব্য কেনা তদারকির করছেন।


বাজারের তুলনায় দাম কম হওয়াই পন্যোর চাহিদা বেশি।
ক্রেতা সাধারণ ঝড় বৃষ্টির মধ্যে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করে চাল ও আটা কিনছেন। করোনা মহামারির কারণে নিন্মমধ্যবিত্ত, নিন্মবিত্ত ও শ্রমহারা খেটে খাওয়া মানুষ এই সুবিধা গুলো পাবেন। বাজারদরের অর্ধেক মূল্যে ওএমএসের চাল (৩০ টাকা কেজি) ও আটা (১৮ টাকা কেজি) বিক্রয় করা হচ্ছে। কেশবপুর অহেদুজ্জামান বিশ্বাস কেশবপুর চারআনি বাজার, জয় ভদ্র হাসপাতাল সড়কের কালাবায়সা মোড়ে, বিষ্ণুদাস প্রেসক্লাব চত্বরে এবং স্বপন মুখার্জি চাউল আড়ত পট্টি এই পৌরসভার ভিতরে ৪জন ডিলার ৪টি পয়েন্ট বিক্রয় করছে ।সকালে শহরের চারআনি বাজার ও প্রেসক্লাব যেয়ে দেখা যায় নারী পুরুষের লম্বা লাইন। প্রকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে ও মানুষ ছুটে এসেছে চাল ও আটা কিনতে । চাল আটা নিতে আসা বালিয়াডাঙ্গার কামরুল ও আলতাপোলের আলেয়া বলেন ও এমএস এর মাধ্যমে কম দামে চাল ও আটা কিনতে সকাল হতে লম্বা লাইনে দাঁড়িয়েছিলাম তারপর ও কমদামে চাল ও আটা কিনতে পেরে আমরা খুশি ।
ডিলার জয় ভদ্র ও ওয়াহিদুজ্জামান বিশ্বাস বলেন সপ্তাহে ৬দিন মাথাপ্রতি কেজি চাল ও আটা নিতে পারবে প্রত্যোকে। প্রতিদিনি ১হাজার ৫শত মেট্রিক টন চাল এবং ১ হাজার মেট্রিক টন আটা বিক্রয় করা হবে।



এই শ্রেণীর আরো সংবাদ