মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

কুলিয়ায় গোপনে বাল্য বিবাহ করেও শেষ রক্ষা হলো না! অতঃপর জরিমানা

নিজস্ব প্রতিনিধি / ৬৬৪
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১

দেবহাটার কুলিয়ায় গোপনে বাল্য বিবাহ করেও শেষ রক্ষা হলো না। সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, বহেরা গ্রামের হযরত আলী শাহাজীর পুত্র ৮ম শ্রেণির ছাত্র সাকিবুল হাসান (১৪), একই গ্রামের রবিউল ইসলাম শাহাজীর কন্যা ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী (১২) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠায় এক পর্য্যায়ে মেয়ের মায়ের সহযোগিতায় ০১/০৮/২১ তারিখে সাতক্ষীরা কোর্টের এভিডেভিট এর মাধ্যমে বিবাহ হয়। অন্যদিকে ছেলের পিতা হয়রত আলী শাহাজী এই বিষয়ে কিছু জানতো না। পরবর্তী এই বিষয়ে তিনি জানতে পেরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

তার পরিপ্রেক্ষিতে (১৪ আগষ্ট) সকাল ১১টায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তার। এসময় উপরোক্ত বিষয়ে মেয়ের মা সংশ্লিষ্ট থাকায় বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭(৮)ধারায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাকে ৫হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তার উপস্থিত সকলের সম্মুখে ছেলে-মেয়ে ও তাদের পিতামাতাকে অঙ্গীকার করে নেন, ছেলে ও মেয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিতে পারবে না। যদি তারা কোন ধরনের যোগাযোগ করে তাহলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।
এসময় উপস্থিত ছিলেন দেবহাটা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাসরিন জাহান, কুলিয়া ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসাদুল ইসলাম, কুলিয়া আঞ্চলিক প্রেসক্লাবের সভাপতি ডা: অহিদুজ্জামান, এ এস আই সুজিত, ইউপি সচিব খালিদ হাসান খান, ইউপি সদস্যা ফাতেমা খাতুন ও ইউপি সদস্য রওনাক-উল-রিপন প্রমূখ।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ