কলারোয়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সংঘর্ষে আহত ১

কলারোয়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সংঘর্ষে আহত ১

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়া উপজেলার কেঁড়াগাছী ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে বাকসা দাখিল মাদরাসায় মাহফিল চলাকালীন সময়ে রাত সাড়ে ১২টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে
জাহাঙ্গীর আলম(৪৪) কে পিছিয়ে ও কুপিয়ে আহত করেছে কিছু কতিপয় ব্যক্তি।

আহত জাহাঙ্গীর আলম জানান, রাত ১২টার দিকে একটা ১১ বছরের মত ছেলেকে রাস্তার পাশে কেবা কারা যেনো মারধর করছে। আমি মনে করলাম যে আমার গ্রামের ছেলে তাই আমি ওই ছেলেটিকে বাঁচাতে গেলে আমাকে মোকলেজ (৩৪), হান্নান মেম্বার (৪৫), শফি মাষ্টার (৫০), রউফ(২৫), ওলি (২৫), মান্নান (৪০)সহ কয়েকজন বেপরোয়া মারদর করে ও মোকলেজ চায়নিজ কুড়াল দিয়ে আমার মাথায় কোপ মারে যার কারণে আমার মাথায় অনেক ক্ষত হয়েছে। তিনি আরও বলেন যে, আমাকে বেপরোয়া মারধোর করার কারণ হলো বিগত দিনে জমিজমা নিয়ে ওদের সমস্যা হয়েছি। ওনার ধারোনা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ওনারা আমাকে বেপরোয়া মারধর করেছে।

এলাকাবাসী ওখান থেকে এলাকাবাসী ওনাকে উদ্ধার করে কলারোয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।

কলারোয়া সরকারি হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডাঃ এরিনা স্মরনীর কাছে জাহাঙ্গীর আলমের চিকিৎসার অবস্থা যানতে চাইলে ওনি বলেন যে, ওনাকে রাতে হাসপাতালে আনার সাথে সাথে আমরা চিকিৎসা শুরু করে দিয়েছিলাম। ওনি এখন ঘুমিয়ে আছে। ওনার ঘুম ভাঙ্গার পরে যদি বমি হয় তাহলে সিটি এসকেন করার জন্য সাতক্ষীরা কিংবা খুলনাতে পাঠিয়ে দিবো।

বিবাদি মোকলেসের কাছে এই বিষয়ে যানতে চাইলে তিনি বলেন যে, আমি ওনাকে কুড়াল দিয়ে কোপ মারি নাই । আমি মারামরি হয়ে যাওয়া পড়ে ওখানে গিয়েছি। কিছু কিশোরেরা মারামারি করছে। এর ভিতরে আমি নাই।

এ রিপোর্ট লেখার আগ পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে বাদি পক্ষ জানান।

Print Friendly, PDF & Email
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন