HEADLINE
পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে ১০ লক্ষ টাকার মালামাল লুট! বাংলাদেশের মেয়েরা এখন আর পিছিয়ে নেই এমপি রুহুল হক ভোমরায় পাসপোর্ট যাত্রীদের তল্লাশির নামে বিজিবির হয়রানি সাতক্ষীরা পৌরমেয়র চিশতিসহ পৌর বিএনপির ১০ নেতা আটক শাশুড়ির কামড়ে জামাইয়ের কান ও জামাইয়ের কামড়ে শাশুড়ির হাতের শিরা বিছিন্ন কালিঞ্চী এ. গফ্ফার মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্দে আদালতে মামলা বৈকারীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ চোরাকারবারি গ্রেপ্তার রাত পোঁহালেই দেবহাটা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্রকান্ডে ফাঁসিয়ে ভারতে পালালেন মূলহোতা নির্বাচন নিয়ে ভাবার কিছু নেই, আমরা গণতান্ত্রিক দল : সাতক্ষীরায় আ.ক.ম মোজাম্মেল হক
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৬:১৭ পূর্বাহ্ন

কলারোয়ায় নিকাহ রেজিষ্ট্রার নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার / ১৯৭
প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২১

সাতক্ষীরার কলারোয়া পৌরসভাধীন ১, ২ ও ৯নং ওয়ার্ডে নিকাহ রেজিষ্ট্রার নিয়োগে চরম দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। গত ১১ অক্টোবর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এই নিয়োগ সংক্রান্ত প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

জানা গেছে, বিগত ২২শে আগস্ট সাতক্ষীরার স্থানীয় একটি পত্রিকায় নিকাহ রেজিষ্ট্রার নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। বিজ্ঞপ্তিতে প্রার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা আলেম পাশ হতে হবে উল্লেখ করা হয়। কিন্তু ৪ জন আবেদনকারীর মধ্যে মাত্র একজনই আলেম পাশ ছিলেন। অভিযোগ উঠেছে, পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নিকাহ রেজিষ্ট্রার মাওলানা মোঃ আমীরুল ইসলামের ছেলে মোঃ কামরুল ইসলাম ১,২ ও ৯ নং ওয়ার্ডের নিকাহ রেজিষ্ট্রার পদে আবেদন করেন, যা সম্পূর্ণ নিয়ম বহির্ভূত। কারণ আবেদনকারী তার নিজের ওয়ার্ডের নির্ধারিত এলাকার জন্য আবেদন করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে প্রার্থী মোঃ কামরুল ইসলাম নিয়ম লঙ্ঘন করে পৌরসভার অন্য ওয়ার্ডের জন্য প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি দেখে আবেদন করেন। পরবর্তীতে তিনি ৩ নং ওয়ার্ডের পরিবর্তে ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হওয়ার জন্য ৩১ আগস্ট ২০২১ তারিখে আবেদন করেন। এসকল অসঙ্গতি থাকার পরও মোঃ কামরুল ইসলাম কোনো অদৃশ্য ক্ষমতার বলে উক্ত পদে নিয়োগ পেয়েছেন বলে মনে করছেন অনেকেই। বিষয়টি যথাযথ তদন্তেরও দাবী জানিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে কলারোয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু বলেন, বোর্ডে মাত্র একজন প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন বাকি তিন প্রার্থী অযোগ্য। মন্ত্রণালয়ে একজনের নাম পাঠানো যাবে কী না জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমার তেমন কিছু জানা নেই। তবে তিনি বলেন, এক জনের নাম পাঠাতে তিনি নারাজ। তবে সুনির্দিষ্ট প্রার্থীকে নিয়োগে সহায়তা করার জন্য পরিকপল্পিতভাবে অযোগ্য প্রার্থীদের নামও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর তোড়জোড় চলছে।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ