HEADLINE
পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে ১০ লক্ষ টাকার মালামাল লুট! বাংলাদেশের মেয়েরা এখন আর পিছিয়ে নেই এমপি রুহুল হক ভোমরায় পাসপোর্ট যাত্রীদের তল্লাশির নামে বিজিবির হয়রানি সাতক্ষীরা পৌরমেয়র চিশতিসহ পৌর বিএনপির ১০ নেতা আটক শাশুড়ির কামড়ে জামাইয়ের কান ও জামাইয়ের কামড়ে শাশুড়ির হাতের শিরা বিছিন্ন কালিঞ্চী এ. গফ্ফার মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্দে আদালতে মামলা বৈকারীতে ১’শ পিস ইয়াবাসহ চোরাকারবারি গ্রেপ্তার রাত পোঁহালেই দেবহাটা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সাতক্ষীরায় ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্রকান্ডে ফাঁসিয়ে ভারতে পালালেন মূলহোতা নির্বাচন নিয়ে ভাবার কিছু নেই, আমরা গণতান্ত্রিক দল : সাতক্ষীরায় আ.ক.ম মোজাম্মেল হক
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন

কপিলমুনিতে ব্যবসায়ীর নিকট চাঁদা দাবীর ঘটনায় আটক ২

কপিলমুনি প্রতিনিধি / ১৩৪
প্রকাশের সময় : বুধবার, ৯ মার্চ, ২০২২

কপিলমুনিতে এক ব্যবসায়ীর নিকট ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবীর ঘটনায় ২ জনকে আটক করেছে পাইকগাছা থানা পুলিশ। ভুক্তভোগীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাদেরকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে বলে জানান পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি জিয়াউর রহমান। আটককৃতদের প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদ শেষে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিক অভিযোগ, পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানাযায়, পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনি বাজারের যমুনা ফিস এর স্বত্তাধিকারী চিত্তরঞ্জন মন্ডল এর কাছে কয়েকদিন দিন যাবৎ একটি চক্র মোবাইল ফোনে চাঁদা দাবী করে আসছিল। এমতাবস্থায় চিত্তরঞ্জন মন্ডল অঞ্জাত চক্রের সদস্যদের চাঁদা না দেওয়ায় ১৮ ফেব্রুয়ারী রাতে ৫-৬ জন যুবক তার কাছে একটি চিঠি দিয়ে আসে। এসময় চিত্তরঞ্জন মন্ডল চিঠিটি পড়ে জানতে পারেন তার কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করা হয়েছে। এমনকি চাঁদা না দিলে তার ছেলেকে অপহরণের হুমকি দেয়া হয় ওই চিঠিতে। এ ঘটনায় যমুনা ফিসের মালিক চিত্তরঞ্জন মন্ডল সোমবার বাদী হয়ে কামাল হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা ৫-৬ জনের নাম উল্লেখ করে পাইকগাছা থানায় একটি মামলা করেন। মামলার সূত্রধরে থানাপুলিশ ঐ রাতে কপিলমুনিতে অভিযান চালিয়ে নাছিরপুর গ্রামের আক্কাস সানার ছেলে কামাল হোসেন (৩৭)কে আটক করে। এরপর তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক মঙ্গলবার রাতে পুলিশ উপজেলার মামুদকাটি এলাকার নিজ বাড়ী থেকে মুনছুর আলীর পুত্র মুনমুন খাঁ (৩২) কে আটক করে। প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে তারা উভয়ে চাঁদা দাবীর ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে জানায় পুলিশ। এ ব্যাপারে পাইকগাছা থানা অফিসার ইনচার্জ জিয়াউর রহমান সাংবাদিকদের জানান, চাঁদা দাবীর ঘটনায় আটককৃতদের বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় জড়িত অন্য অসামীরা পলাতক রয়েছে। তবে তাদেরকে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ