কপিলমুনিতে দ্বিতীয় স্ত্রীর মামলায় স্বামী আটক

কপিলমুনিতে দ্বিতীয় স্ত্রীর মামলায় স্বামী আটক

প্রবীর জয়, কপিলমুনি প্রতিনিধিঃ কপিলমুনিতে দ্বিতীয় স্ত্রী কর্তৃক দায়েরকৃত মামলায় মীর তৈয়বুরকে আটক করেছে থানা পুলিশ। তবে তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পাইকগাছা থানায় একটি মামলা হয়েছে। যার নং- ০২, তারিখ-০১/০৩/২০২১।

মামলা ও থানা পুলিশ সূত্রে জানাযায়, খুলনা জেলা পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী  ইউনিয়নের হরিদাশকাটী গ্রামের মীর হায়বাত শেখের পুত্র মীর তৈয়বুর রহমান ২০১৪ সালের মধ্যেবর্তী সময়ে ঢাকায় গিয়ে গার্মেন্টসে চাকুরী শুরু করে। এর একপর্যায়ে ঘটনাক্রমে অপর সৌদি প্রবাসী এক গার্মেন্টেস কর্মী রুমা বেগমের সাথে সখ্যতা গড়ে উঠে। এক সময়ে তারা উভয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিবাহের সূত্র ধরে রুমা বেগমের কোল জুড়ে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম নেয়। তবে পরবর্তীতে তৈয়বুরের পরিবারের মধ্যে দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়টি জানাজানি হলে প্রথম স্ত্রীসহ তার পরিবার মেনে নিতে পারেনি। এমনকি কৌশলগত ভাবে তৈয়বুরের মা ও বোনের কু-পরামর্শে বিবাহের কাগজ ছিড়ে ফেলে বিবাহ ও ৪ বছর বয়সী ফেরদাউস নামের একমাত্র কন্যা সন্তানকে অস্বীকার করে। পরিশেষে রুমা বেগম নিরুপায় হয়ে সোমবার (০১ মার্চ) পাইকগাছা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে তৈয়বুরসহ তার মাকে আসামী করে একটি মামলা করেন। যার নং-০২। উক্ত মামলায় পাইকগাছা থানার এসআই (অপারেশন) দেবাশীষ বিশ্বাস অভিযান চালিয়ে তৈয়বুর ও তার মা পারুল বেগমকে গ্রেফতার করেছেন।

এব্যাপারে পাইকগাছা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এজাজ শফী জানান, ভুক্তভোগী রুমা বেগম কৃর্তক থানায় দায়েরকৃত নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় আসামী তৈয়বুর ও তার মা পারুল বেগমকে আটক পূর্বক আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন