কচুয়াতে গোপালপুর ইউনিয়ন ছাত্র দলের বিক্ষোভ

কচুয়াতে গোপালপুর ইউনিয়ন ছাত্র দলের বিক্ষোভ

উজ্জ্বল কুমার দাস (কচুয়া, বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ

কচুয়া উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক মোঃরানা দিদারের অপসারণের দাবিতে কচুয়া উপজেলার গোপালপুর  ইউনিয়ন ছাত্র দলের আয়োজনে বিক্ষোভ মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ পালন করেছে গোপালপুর ইউনিয়ন ছাত্র দলের কর্মীরা।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ২ মার্চ সকাল ১০ ঘটিকায় গোপালপুর ইউনিয়ন ছাত্র দলের পক্ষ থেকে গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ৩য় দফায় বিক্ষোভ মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ পালন করে দলটির সহযোগী ছাত্র সংগঠন।গত মাসে একি দাবিতে কচুয়া সদর ইউনিয়ন ও গজালিয়া ইউনিয়নে আলাদা-আলাদা ভাবে আরো ২টি বিক্ষোভ মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ পালন করেছিল দলটির ছাত্র সংগঠন।

সেখানে ছাত্রদলের বিভিন্ন নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন কচুয়া ছাত্র দলের নবগঠিত কমিটির আহবায়ক রানা দিদারের নানামুখী সমালোচনা করেন দ্রুত তম সময়ের মধ্যে তার পদত্যাগের দাবি করেন।

একি দাবিতে গোপালপুর ইউনিয়ন ছাত্র দলের মোঃমনিরুজ্জামান অচিরেই নবগঠিত কমিটির আহবায়ক এর অপসারণের জোড়ালো দাবি তোলেন।আরেক বক্তব্যে মোঃ জাকির শেখ বলেন,রানা দিদারের পক্ষে একটি বিচ্ছিন্ন মহল আমাদের দাবিকে ভিন্ন খাতে নেওয়ার চেষ্টা করছে যা কখনোই সম্ভব হবে না বলে দাবি করেন।

এদিন ছাত্র দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দদের বক্তব্যে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্র দল বাগেরহাট জেলার অন্তরগত উপজেলা শাখার নবগঠিত আহবায়ক হিসাবে অযোগ্য,অথর্ব, অসাংবিধানিক,অদক্ষ,নেশাগ্রস্ত ও কচুয়া উপজেলার ছাত্র দলের সকল নেতাকর্মী থেকে বিচ্ছিন্ন বলেও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে দাবি করা হয়।কচুয়া ইউনিয়ন ও গজালিয়া ইউনিয়ন ছাত্র দলের বিক্ষোভ কর্মসূচির পালনের প্রশংসা ও করেন তারা।

এ বিষয়ে নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, কচুয়া উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ছাত্রদল কর্মীদের সম্মতিতে চলমান দাবির প্রেক্ষিতে ৩য় দফায় আজ বিক্ষোভ কর্মসূচির পালন করল গোপালপুর ইউনিয়ন ছাত্রদল।আরো বলেন আমাদের যৌক্তিক দাবি পূরন না হওয়া পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে বাকি ৪ ইউনিয়নেও বিক্ষোভ কর্মসূচি ও সমাবেশ অব্যাহত থাকবে।

অন্যদিকে অভিযুক্ত রানা দিদারের পক্ষে গতকাল একটি বিক্ষোভ মিছিল পালন করা হয়।বিক্ষোভ কর্মসূচিতে রানাদিদারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করাহচ্ছে বলে অভিযোগ করেন।রানা দিদারের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ কারিদের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, রানা দিদার যে বিক্ষোভ পালন করেছে এটাই প্রমান করে আহবায়ক হিসাবে সে অযোগ্য কারন তাদের বিক্ষোভ কর্মসূচি কচুয়া সদর ইউনিয়নে পালন করার কথা বলা হলেও আদৌ তা করা হয় নি।তারা বিচ্ছিন্ন কিছু দলের বাইরের লোক নিয়ে মোড়েলগন্জ রোডে তথাকথিত এ কর্মসূচি পালন করে।যা স্পষ্ট প্রমান করে কচুয়া উপজেলার ৭ ইউনিয়নে সাথে নবগঠিত আহবায়কের কোন সম্পর্ক নেই।তাই এবিষয়ে আমাদের কোন মন্তব্য নেই।

৩য় দফায় গোপালপুরের  বিক্ষোভ মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অন্যঅন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ মনিরুজ্জামান, মোঃতরিকুল ইসলাম, মোঃজাকির শেখ,নকিব রবিউল ইসলাম, মোঃনয়ন শেখ,মোঃরাকিব শেখ,মোঃহাচান শেখ,ওহিদুল ইসলাম সহ আরো অনেকে।

Print Friendly, PDF & Email
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন