HEADLINE
সাতক্ষীরা সীমান্তে অপরাধ দমনে বিজিবি ও বিএসএফ এর পতাকা বৈঠক ঝাউডাঙ্গা হাইস্কুল জামে মসজিদের ওযুখানা নির্মাণ কাজ উদ্বোধন শ্যামনগরে বিদ্যুৎস্পর্শে কৃষকের মৃত্যু কাশ্মিরি ও থাইআপেল কুল চাষে সফল সাতক্ষীরার মিলন ঝাউডাঙ্গা সড়কে বাস উল্টে ১০জন আহত ঝাউডাঙ্গায় জমকালো আয়োজনে শুরু হচ্ছে পৌষ সংক্রান্তি মেলা কালিগঞ্জে শীতার্ত মানুষের পাশে ”বিন্দু” মাদ্রাসা শিক্ষক শামসুজ্জামানের বিরুদ্ধে ফের ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগ স্বামী বিবেকানন্দ দর্শন আমাদের মুক্তির পথ : সাতক্ষীরায় ১৬০তম জন্মবার্ষিকী উৎসবে আলোচকরা আ’লীগ নেতার বাড়িতে ডাকাতি, ১৫ লাখ টাকা ও ৩৪ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট 
মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:০৮ অপরাহ্ন

আশাশুনিতে ঘেরমালিককে জখম করে মাছ ছিনতাই

আশাশুনি প্রতিনিধি / ১২৬
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০২২

আশাশুনিতে ডিড নিয়ে মৎস্য চাষকারী ঘেরমালিককে জখম করে মাছ ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত ঘেরমালিক রোকনুজ্জামানকে আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার (১৬ জুলাই) ভোর ৬ টার দিকে উপজেলার প্রতাপনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

প্রতাপনগর গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে আহত ঘেরমালিক রোকনুজ্জামান গাজী জানান, প্রতাপনগর গ্রামের শাহাবুদ্দীন গাজীর ছেলে আসলাম গাজী, মহসীন গাজী ও প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা জামাত আলী গাজীর স্ত্রী মারুফা পারভীন তাদের প্রতাপনগর মৌজার ১ বিঘা জমি ২০২১ সালে মৌখিক ডিড প্রদান করেন। সেই থেকে তিনি শান্তিপূর্ণভাবে সেখানে মৎস্য চাষ করে আসছেন। এজমালি সম্পত্তি হওয়ায় আপোষে দখলে থাকা জমির মালিকানা নিয়ে বিরোধ হওয়ায় শাহাবুদ্দীন গাজীর অপর ছেলে ফজলুল হক ও তার বখাটে ছেলে কাহর আলী শনিবার ভোরে তান ঘেরে গিয়ে আটন ঝাড়তে থাকে। তিনি বাঁধা দিলে সে তাকে (রোকনুজ্জামান) পিটিয়ে রক্তাত্ব জখম করে আটনে থাকা মাছ ছিনতাই করে নিয়ে যায়। তার চিৎকারে পাশের লোকজনের সহায়তায় তাকে আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। লুটকারী কাহর চিহ্নিত বাখাটে ও চোর হিসেবে এলাকায় পরিচিত। তাকে নিয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠক হয়েছে। এবং নারীঘটিত অভিযোগ রয়েছে। 

জমির মালিক বীর মুক্তিযোদ্ধা পত্নী মারুফা পারভীন ও আসলাম গাজী জানান, পারিবারিক আপোষ সিদ্ধান্তে উক্ত এক বিঘা জমিরর দখল বুঝে পেয়ে তারা রোকনুজ্জামানকে মৌখিক ডিড দেন। কাহর ও তার পিতা প্রায় দেড় বছর পরে আপোষ সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ঞের জবর দখলের চেষ্টা, ঘেরমালিককে রক্তাত্ব জখম ও মাছ লুটের ঘটনা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি  চলছিলো।


এই শ্রেণীর আরো সংবাদ