আদালতের নির্দেশ অমান্য করে অন্যের জমিতে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে অন্যের জমিতে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি: আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ফিংড়িতে ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে অন্যের জমিতে জোরপূর্বক নির্মাণ কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় ভুক্তভোগীরা বাধা দিতে গেলে জবর দখলকারীরা খুন জখমসহ বিভিন্ন ধরনের হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে। শুক্রবার সকালে ফিংড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

সাংবাদিকদের কাছে ফিংড়ী গ্রামের মৃত জবেদ আলী মোড়লের পুত্র নজরুল ইসলাম নজু অভিযোগ করে বলেন, ফিংড়ী মৌজায় ৩৯ শতক ভিটাবাড়ীর জমি আছে। আমি দীর্ঘদিন যাবত সেখানে বসবাস করি। কিন্তু একই এলাকার ইজ্জত আলীর ছেলে সাইদুর রহমান গং উক্ত সম্পত্তি অবৈধভাবে দখলের চক্রান্ত শুরু করে। এনিয়ে সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ২০৭/২০২১ নং মামলা দায়ের করলে আদালত উক্ত সম্পত্তিতে ১৪৫ ধারা জারি পূর্বক শান্তি শৃংখলা বজায় রাখার জন্য ওসি সাতক্ষীরা থানা কে নির্দেশ দেন।

সে অনুযায়ী সাতক্ষীরা সদর থানার এ এস আই হাসান, ব্রহ্মরাজপুর ফাঁড়ির এ এস আই আজিম সর্বশেষ সদর থানার এস আই হাজ্জাজ মাহমুদ সেখানে গিয়ে উভয় পক্ষকে আদালতের নির্দেশ জানিয়ে কাজ বন্ধ রাখতে বলেন। কিন্তু উল্লেখিত সাইদুর রহমান, তার দুই ছেলে নাইচ ও নাঈম হোসেন আদালতের সে নির্দেশ ও থানা পুলিশের নির্দেশ অমান্য করে লাটি-সোটা, দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ভাড়াটিয়া লোকজন নিয়ে ১৬ এপ্রিল ২০২১ শুক্রবার সকালে উক্ত সম্পত্তিতে কাজ শুরু করে। এতে বাধা দিতে গেলে উল্লেখিত সাঈদুর ও তার লোকজন নজরুল ইসলামসহ তার পরিবারের লোকজনদের মারপিট করতে উদ্যাত হয়। এছাড়া খুন জখমসহ বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে। এঘটনায় ভুক্তভোগী নজরুল ইসলাম আদালত ও থানা পুলিশের নির্দেশ অমান্যকারী সাইদুর গংয়ের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
এই সংবাদটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন